https://bangla-times.com/
ঢাকাশুক্রবার , ১৯ এপ্রিল ২০২৪

যুদ্ধের মেঘ ঘনীভূত, ইরানে মিসাইল হামলা ইজরায়েলের

বাংলা টাইমস্
এপ্রিল ১৯, ২০২৪ ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ । ২৪ জন
Link Copied!

যুদ্ধের মেঘ ঘনীভূত মধ্যপ্রাচ্যে। ইরানে মিসাইল হামলা চালিয়েছে ইজরায়েল। খবর:রয়টার্স। কয়েক আগে তেহরানের আক্রমণের জবাব দিতেই ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে ইজরায়েলি ডিফেন্স ফোর্সেস (আইডিএফ)।

সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) রাতে ইরানে আছড়ে পড়ে কয়েকটি ইজরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র। দেশটির ইসফাহান শহরে তীব্র বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়।

বিশ্লেষকদের মতে, ইজরায়েলের হিটলিস্টে রয়েছে ইসাফাহান। এর কারণ, এখানে ইরানের কয়েকটি পরমাণু কেন্দ্র রয়েছে। তেল আভিভের দাবি, শক্তি উৎপাদনের আড়ালে ওই কেন্দ্রগুলোতে আণবিক বোমা বানাচ্ছে তেহরান।

অতীতেও ইরানের পারমাণু শক্তি কেন্দ্রগুলোকে নিশানা করেছে ইজরায়েল। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। গত সোমবার আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি সংস্থার প্রধান রাফায়েল গ্রসির গলায় শোনা যায় এমন আশঙ্কার সুর। তিনি জানিয়েছিলেন, নিরাপত্তার স্বার্থে সাময়িকভাবে ইরানের পরমাণু কেন্দ্রগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১ এপ্রিল দামাস্কাসে ইরানের দূতাবাসে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় আইডিএফ। তাতে ১৩ জনের মৃত্যু হয়। এরমধ্যে দুজন ইরানি সেনাকর্তা ছিলেন। এরপর ১৩ এপ্রিল ইজরায়েলকে নিশানা করে পালটা ড্রোন ও ক্ষেপণান্ত্র ছোড়ে ইরানের ইসলামিক রেভলিউশনারি গার্ড কোর।

তেহরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি হুঁশিয়ারি দেন, ইজরায়েল পালটা হামলা চালালে তার জবাব ভয়াবহ হবে। জায়নবাদে’র বিরুদ্ধে এই লড়াই থেকে আমেরিকাকেও দূরে থাকার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল দেশটি। পালটা, বদলা নেয়ার হুমকি দিয়েছিলো তেল আভিভ।

এদিকে, বিশ্লেষকরা বলছেন, ইজরায়েলের পালটা হামলায় গোটা মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধের আগুন ছড়িয়ে পড়তে পারে। কারণ হামাস এটাই চেয়েছিলো। মধ্যেপ্রাচ্যের মুসলিম দেশগুলো যাতে একসাথে ইজরায়েলের উপর হামলা চালায় সেই চেষ্টাই করছিলো প্যালেস্তিনীয় জঙ্গিগোষ্ঠীটি। এবার ইরান ও ইজরায়েলের যুদ্ধ শুরু হলে হামাসের সেই প্রয়াস সফল হবে।