https://bangla-times.com/
ঢাকাবুধবার , ২৭ মার্চ ২০২৪
  • অন্যান্য

ঈদ টার্গেটে বেড়েছে ছিনতাই

আবুল কাশেম রুমন, সিলেট
মার্চ ২৭, ২০২৪ ৬:২৬ অপরাহ্ণ । ৮৩ জন
Link Copied!

সিলেটে ঈদকে টার্গেট করে বেড়েছে ছিনতাই। বিশেষ করে নগরীর বড় বড় বিপানী বিতান গুলোর সামনে ছিনতাইয়ের শিকার হচ্ছেন শপিংকে আসা ক্রেতারা। এরমধ্যে বেশির ভাগ খোয়া যাচ্ছে স্মার্ট ফোন, মানিব্যাগ ও ভ্যানিটি ব্যাগ (পার্স) ছিনতাইকারী চক্রের হাতে। এ চক্রের প্রধান টার্গেট বিদ্যুতের লোডশেডিং। বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার সাথে সাথে ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যরা ক্রেতা ও পথচারীদের উপর হামলে পড়ে বলে কয়েকজন ভুক্তভোগী অভিযোগ করেছেন।

আম্বরখানা-টুকেরবাজার রুটের সিএনজি অটোরিক্সা চালক হাবিবুর রহমান মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) জানান, মূলত ছিনতাই চক্রের সদস্যরা জিন্দাবাজার ও বন্দরবাজার এলাকায় ছিনতাই করে। রমজান মাসে বিদ্যুতের লোডশেডিং বেড়ে যাওয়ায় চক্রটি বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এসব ছিনতাইকারীর নেতৃত্বে রয়েছে কিছু কিশোর গ্যাং সদস্য।

এ চালক জানান, চক্রের সদস্যরা বিদ্যূৎ চলে যাওয়ার পর পিছনের সিটে রেখে দিয়ে তারা সিএনজি থামিয়ে যাত্রীদের জিম্মি করে তাদের স্মার্ট ফোন, মানি ব্যাগ কিংবা পার্স ছিনিয়ে নেয়।

ওই চালক আরও জানান, জিন্দাবাজার ও কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় ছিনতাই হয় ইফতারের কিছু পূর্বে। মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় ইফতারের সামান্য আগে এ রকম একটি মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনা প্রত্যক্ষ করেছেন।

আরেক ভুক্তভোগী জানান, সিলেটে ‘কিশোর গ্যাং’ চক্র আবারও সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তারা সুযোগ বুঝে ছিনতাইসহ নানা অপরাধ করে। মাঝখানে কিছু দিন স্থবির থাকলেও ঈদকে সামনে রেখে আবারও তৎপর হয়ে উঠেছে কিশোর গ্যায়ের সদস্যরা।

দু‘দিন পূর্বে এ প্রতিবেদন নগরীর স্টেডিয়াম মার্কেট এলাকায় দিনে-দুপুরে এক ছিনতাইকারীকে মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি প্রত্যক্ষ করেন। ভুক্তভোগীরা ওই ছিনতাইকারীকে তাড়া করলেও তাকে ধরতে ব্যর্থ হন।

এ ব্যাপারে কোতয়ালী থানার ডিউটি অফিসার এস আই ফখরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, নগরীতে লোডশেডিংয়ের মধ্যে মোবাইল-মানিব্যাগ ছিনতাইয়ের বিষয়টি তার জানা নেই।