https://bangla-times.com/
ঢাকামঙ্গলবার , ২ এপ্রিল ২০২৪
  • অন্যান্য

সন্তানধারণের আগে ওজন বেশি হলে কি হয়, কি করতে হবে, জানুন?

বাংলা টাইমস্
এপ্রিল ২, ২০২৪ ১:০৫ পূর্বাহ্ণ । ১১৪ জন
Link Copied!

সন্তানধারণের পরিকল্পনা করছেন। কিন্তু সেই রিকল্পনায় কি বাধা হতে পারে ওজন? চিকিৎসকদের মতে, ওজন বেশি হলেই গর্ভধারণ করা যায় না, এটা একবারেই ঠিক নয়। তবে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় ওজন বেশি হলে শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। অতিরিক্ত ওজনের কারণে রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়িয়ে দিতে পারে। এই কারণে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যাও দেখা দেয়।

এছাড়া অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় বাড়তি ওজনের ফলে ভ্রূণ নষ্ট হয়ে যাওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়। তাই সন্তানধারণের আগে ওজন কমিয়ে আনা জরুরি। এছাড়া অনেকেরই ঋতুচক্র স্বাভাবিক হয় না, সন্তানধারণের আগে ওদিকেও নজর রাখা প্রয়োজন। এসময় মহিলাদের কোনও রকম মানসিক চাপ থেকে দূরে রাখতে হবে। মা হওয়ার জন্য শরীরের চাই বিশেষ কিছু প্রস্তুতি। যোগাসনের মাধ্যমেই এসব সমস্যার সমাধান সম্ভব। জেনে নেয়া যাক সন্তানধারণের আগে নিয়ম মেনে কোন কোন আসন করলে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হবে।

ভুজঙ্গাসন: উপুড় হয়ে শুয়ে হাতের তালু মেঝের উপর ভর দিয়ে পাঁজরের দু’পাশে রাখুন। কোমর থেকে পা পর্যন্ত মাটিতে রেখে হাতের তালুর উপর ভর দিয়ে বাকি শরীর ধীরে ধীরে উপরের দিকে তুলুন। মাথা বেঁকিয়ে উপরের দিকে তাকান। এই ভঙ্গিতে ২০-৩০ সেকেন্ড থাকার পর পূর্বের অবস্থায় ফিরে যান। প্রতিদিন কমপক্ষে ৩-৪ বার এই আসনটি করতে পারেন। পেটের মেদ কমাতে সাহায্য করে এই আসন।

মালাসন: মাটিতে বসে দুই পা দুই দিকে দিয়ে উঁচু হয়ে বসুন। দুই পা যথা সম্ভব কাছাকাছি রাখুন। হাত দু’টি নমস্কারের ভঙ্গিতে জড়ো করুন। টানা ৩-৪ মিনিট এই আসনে থাকার পর পূর্বের অবস্থায় আসুন।

মার্জারাসন: দুই পা প্রথমে মাটিতে, এরপর হাতের উপর ভর দিয়ে বিড়ালের মত ভঙ্গি করুন। তারপর একবার পিঠ ফুলিয়ে মাথা নিচু করে শ্বাস নিন। আবার পেট ঢুকিয়ে শ্বাস ছাড়ুন। এ আসন করুন কমপক্ষে পাঁচ বার করে অন্তত৫ মিনিট।

পদহস্তাসন: সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে ধীরে ধীরে পা দুটো সামান্য ফাঁক করুন। এরপর শ্বাস নিতে নিতে হাত দুটো উপরের দিকে তুলুন। এবার ধীরে ধীরে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে কোমর থেকে শরীরের উপরের অংশ সামনের দিকে ঝুঁকিয়ে দিন। হাত দিয়ে গোড়ালি স্পর্শ করুন। খেয়াল রাখতে হবে হাঁটু যেন না ভাঙে। এই অবস্থায় ২০-৩০ সেকেন্ড থাকার পর পূর্বের অবস্থায় ফিরে যান।

বীরভদ্রাসন: পা দু’টো দুই দিকে পর্যাপ্ত দূরত্বে ছড়িয়ে দিয়ে সোজা হয়ে দাঁড়ান। দুই হাত কান বরাবর উপরের দিকে তুলে নমস্কার ভঙ্গিতে দাঁড়ান। হাত একদম সোজা ও মুখ আকাশের দিকে থাকবে। তারপর একদিকে ঘুরে সেই দিকের হাঁটু ধীরে ধীরে ভাঁজ করুন। পিছনের পা ও শরীর সোজা রেখেই উপরের দিকে তাকাবেন। এইভাবে ২০ সেকেন্ড স্থির হয়ে থেকে বিশ্রাম নিবেন।