ঢাকা ১১:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তিন হাজার কোটি টাকা ভূয়া ঋণ: ৪ ব্যাংক কর্মকর্তার বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৬:২৫:৫৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪ ৪৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

তিন হাজার কোটি টাকার ভূয়া ঋণ অনুমোদনের অভিযোগে প্রিমিয়ার ব্যাংকের চার কর্মকর্তার বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন আদালত। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দু’দক) উপপরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমানের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রোববার (২৩ জুন) ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ মোহাম্মদ আসসামছ জগলুলের আদালত এই আদেশ দিয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর।

প্রিমিয়ার ব্যাংকের এই ৪ কর্মকর্তা নারায়ণগঞ্জ শাথায় কর্মরত। তারা হলো- ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ শহীদ হাসান মল্লিক, ভাইস প্রেসিডেন্ট ও শাখার ২য় কর্মকর্তা মুশফিকুল আলম, এসএভিপি ও শাখার ফরেন এক্সচেঞ্জ ইনচার্জ দীপক কুমার দেবনাথ এবং এসএভিপি ও শাখার ক্রেডিট ইনচার্জ মুহাম্মদ মেহেদী হাসান সরকার।

দুদকের আবেদনে বলা হয়, প্রিমিয়ার ব্যাংকের নারায়নগঞ্জ ও প্রধান কার্যালয়ের কতিপয় বিভাগের কর্মকর্তাদের যোগসাজশে ব্যাক টু ব্যাক এলসি সুবিধার আড়ালে জাল-জালিয়াতি, বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে ৪৩টি সন্দেহভাজন তৈরী পোষাক রপ্তানীকারক প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা ভুয়া ঋণ মঞ্জুরপূর্বক আত্মসাতের অভিযোগ অনুসন্ধানাধীন রয়েছে।

আবেদন আরো বলা হয়, অভিযোগের নিমিত্তে তিন সদস্যের একটি অনুসন্ধানকারী টিম গঠন করা হয়েছে। জানা গেছে, অভিযোগ-সংশ্লিষ্ট নিম্নোক্ত ব্যক্তিরা অর্থ পাচার ও দেশত্যাগের পরিকল্পনা করছে। আর এই কারণে, তাদের বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা একান্ত প্রয়োজন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

তিন হাজার কোটি টাকা ভূয়া ঋণ: ৪ ব্যাংক কর্মকর্তার বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা

সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৬:২৫:৫৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪

তিন হাজার কোটি টাকার ভূয়া ঋণ অনুমোদনের অভিযোগে প্রিমিয়ার ব্যাংকের চার কর্মকর্তার বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন আদালত। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দু’দক) উপপরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমানের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রোববার (২৩ জুন) ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ মোহাম্মদ আসসামছ জগলুলের আদালত এই আদেশ দিয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর।

প্রিমিয়ার ব্যাংকের এই ৪ কর্মকর্তা নারায়ণগঞ্জ শাথায় কর্মরত। তারা হলো- ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ শহীদ হাসান মল্লিক, ভাইস প্রেসিডেন্ট ও শাখার ২য় কর্মকর্তা মুশফিকুল আলম, এসএভিপি ও শাখার ফরেন এক্সচেঞ্জ ইনচার্জ দীপক কুমার দেবনাথ এবং এসএভিপি ও শাখার ক্রেডিট ইনচার্জ মুহাম্মদ মেহেদী হাসান সরকার।

দুদকের আবেদনে বলা হয়, প্রিমিয়ার ব্যাংকের নারায়নগঞ্জ ও প্রধান কার্যালয়ের কতিপয় বিভাগের কর্মকর্তাদের যোগসাজশে ব্যাক টু ব্যাক এলসি সুবিধার আড়ালে জাল-জালিয়াতি, বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে ৪৩টি সন্দেহভাজন তৈরী পোষাক রপ্তানীকারক প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা ভুয়া ঋণ মঞ্জুরপূর্বক আত্মসাতের অভিযোগ অনুসন্ধানাধীন রয়েছে।

আবেদন আরো বলা হয়, অভিযোগের নিমিত্তে তিন সদস্যের একটি অনুসন্ধানকারী টিম গঠন করা হয়েছে। জানা গেছে, অভিযোগ-সংশ্লিষ্ট নিম্নোক্ত ব্যক্তিরা অর্থ পাচার ও দেশত্যাগের পরিকল্পনা করছে। আর এই কারণে, তাদের বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা একান্ত প্রয়োজন।