ঢাকা ০৬:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৫০০ টাকায় ট্রেনে চড়ে গরু এলো ঢাকায়

লিয়াকত হোসাইন লায়ন,জামালপুর
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ১১:৪৯:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪ ৬১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

জামালপুরের ইসলামপুর থেকে ঢাকায় কোরবানির পশু ৫০০ টাকায় স্পেশাল ক্যাটল ট্রেনটি যাত্রা শুরু হয়েছে। কোরবানীর ঈদ উপলক্ষে ইসলামপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে তিনটি ক্যাটল ট্রেন চালু করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। প্রতি বগিতে ১৬টি করে গরু নিতে খরচ হবে আট হাজার টাকা। আর গরু প্রতি গুণতে হবে ৫০০ টাকা।

বুধবার (১২ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় ইসলামপুর থেকে প্রথম ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। প্রতিটি ট্রেনে ২৬টি করে ওয়াগন রয়েছে। প্রত্যেকটিতে ১৬টি করে গরু নিয়ে যাওয়া হয়।

চলতি বছর ইসলামপুর থেকে ৬২টি ও মেলান্দহ স্টেশন থেকে ৬টি ওয়াগন বুকিং করেছে গরু ব্যবসায়ীরা। প্রতিটি ওয়াগনের ভাড়া আট হাজার টাকা করে নির্ধারণ করা হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রথম ট্রেনটি ছাড়ার দুই ঘণ্টা পর দ্বিতীয় ট্রেনটি ছাড়ে যায়। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেলে তৃতীয় ট্রেনটি ইসলামপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাবে।

গরু ব্যবসায়ী আব্দুল আলিম বলেন, আগে ট্রাকে করে গরু নিয়ে গেলে বিভিন্ন জায়গায় চাঁদা দেয়া লাগতো। আলিম শেখ নামে আরেক ব্যবসায়ী বলেন, ট্রাকে করে গেলে গরুর অসুস্থ হয়ে পড়ে। ট্রেনে গেলে কোনো ঝাকি লাগে না।

জয়নাল মিয়া বলেন, ট্রেনে গেলে আমাদের খরচ অর্ধেক লাগে। যেখানে ট্রাকে গেলে বেশি খরচ ও ঝুকি বেশি থাকে। সেজন্য এসব এলাকার গরু ব্যবসায়ীরা এখন ট্রাকের বদলে ট্রেনকেই বেশি পছন্দ করছে।

ইসলামপুর রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন মাস্টার শাহীন মিয়া বলেন, গত বছরের তুলনায় চলতি বছর ক্যাটল স্পেশাল ট্রেনের আরো ভালো সাড়া পাওয়া গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

৫০০ টাকায় ট্রেনে চড়ে গরু এলো ঢাকায়

সংবাদ প্রকাশের সময় : ১১:৪৯:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪

জামালপুরের ইসলামপুর থেকে ঢাকায় কোরবানির পশু ৫০০ টাকায় স্পেশাল ক্যাটল ট্রেনটি যাত্রা শুরু হয়েছে। কোরবানীর ঈদ উপলক্ষে ইসলামপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে তিনটি ক্যাটল ট্রেন চালু করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। প্রতি বগিতে ১৬টি করে গরু নিতে খরচ হবে আট হাজার টাকা। আর গরু প্রতি গুণতে হবে ৫০০ টাকা।

বুধবার (১২ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় ইসলামপুর থেকে প্রথম ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। প্রতিটি ট্রেনে ২৬টি করে ওয়াগন রয়েছে। প্রত্যেকটিতে ১৬টি করে গরু নিয়ে যাওয়া হয়।

চলতি বছর ইসলামপুর থেকে ৬২টি ও মেলান্দহ স্টেশন থেকে ৬টি ওয়াগন বুকিং করেছে গরু ব্যবসায়ীরা। প্রতিটি ওয়াগনের ভাড়া আট হাজার টাকা করে নির্ধারণ করা হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রথম ট্রেনটি ছাড়ার দুই ঘণ্টা পর দ্বিতীয় ট্রেনটি ছাড়ে যায়। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেলে তৃতীয় ট্রেনটি ইসলামপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাবে।

গরু ব্যবসায়ী আব্দুল আলিম বলেন, আগে ট্রাকে করে গরু নিয়ে গেলে বিভিন্ন জায়গায় চাঁদা দেয়া লাগতো। আলিম শেখ নামে আরেক ব্যবসায়ী বলেন, ট্রাকে করে গেলে গরুর অসুস্থ হয়ে পড়ে। ট্রেনে গেলে কোনো ঝাকি লাগে না।

জয়নাল মিয়া বলেন, ট্রেনে গেলে আমাদের খরচ অর্ধেক লাগে। যেখানে ট্রাকে গেলে বেশি খরচ ও ঝুকি বেশি থাকে। সেজন্য এসব এলাকার গরু ব্যবসায়ীরা এখন ট্রাকের বদলে ট্রেনকেই বেশি পছন্দ করছে।

ইসলামপুর রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন মাস্টার শাহীন মিয়া বলেন, গত বছরের তুলনায় চলতি বছর ক্যাটল স্পেশাল ট্রেনের আরো ভালো সাড়া পাওয়া গেছে।