ঢাকা ০৯:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘স্মার্ট জনশক্তি তৈরিতে হাতে-কলমে শিক্ষার বিকল্প নেই’

সোহরাব হোসেন সৌরভ, রাজশাহী
  • আপডেট সময় : ০৩:১২:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪ ২৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাজশাহী-২ আসনের এমপি মো. শফিকুর রহমান বাদশা বলেছেন, শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলতার বিকাশ ও কর্মকে গুরুত্ব দিয়ে দীর্ঘ গবেষণার মধ্যে দিয়ে যুগপোযোগী কারিকুলাম তৈরি করা হয়েছে। না বুঝে অনেকেই সমালোচনা করেন। অথচ স্মার্ট কর্মমুখী জনশক্তি তৈরিতে হাতে কলমে শিক্ষার কোন বিকল্প নেই।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সকাল ১০টায় রাজশাহী উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে আয়োজিত এক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের যুগে সুনির্দিষ্ট মিশন ও ভিশন না থাকলে সামনে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব না। এ কারণে সরকার যুগপোযোগী পদক্ষেপ নিয়েছে। নাগরিকরা যেনো স্মার্ট, কর্মমুখী বিশ্বনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে পারে সেই লক্ষ্যে বর্তমান সরকার কাজ করছে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন-মাউশি অধিদপ্তরের ডিসেমিনেশন অব নিউ কারিকুলাম স্কিম উপ-পরিচালক ড. মোহম্মদ কুদরত-ই- হুদা, মাউশি ট্র্র্রেনিং স্পেশালিস্ট আখতারুজ্জামান, মাউশি রাজশাহী অঞ্চলের পরিচালক অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ ব্যার্নাজী, মাউশি রাজশাহী আঞ্চলিক ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক ড. শরমিন ফেরদৌস চৌধুরী।

প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন- উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট রাজশাহীর পরিচালক অধ্যাপক মো. ওয়াহেদুল কবির সুহার্দী।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

‘স্মার্ট জনশক্তি তৈরিতে হাতে-কলমে শিক্ষার বিকল্প নেই’

আপডেট সময় : ০৩:১২:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

রাজশাহী-২ আসনের এমপি মো. শফিকুর রহমান বাদশা বলেছেন, শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলতার বিকাশ ও কর্মকে গুরুত্ব দিয়ে দীর্ঘ গবেষণার মধ্যে দিয়ে যুগপোযোগী কারিকুলাম তৈরি করা হয়েছে। না বুঝে অনেকেই সমালোচনা করেন। অথচ স্মার্ট কর্মমুখী জনশক্তি তৈরিতে হাতে কলমে শিক্ষার কোন বিকল্প নেই।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সকাল ১০টায় রাজশাহী উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে আয়োজিত এক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের যুগে সুনির্দিষ্ট মিশন ও ভিশন না থাকলে সামনে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব না। এ কারণে সরকার যুগপোযোগী পদক্ষেপ নিয়েছে। নাগরিকরা যেনো স্মার্ট, কর্মমুখী বিশ্বনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে পারে সেই লক্ষ্যে বর্তমান সরকার কাজ করছে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন-মাউশি অধিদপ্তরের ডিসেমিনেশন অব নিউ কারিকুলাম স্কিম উপ-পরিচালক ড. মোহম্মদ কুদরত-ই- হুদা, মাউশি ট্র্র্রেনিং স্পেশালিস্ট আখতারুজ্জামান, মাউশি রাজশাহী অঞ্চলের পরিচালক অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ ব্যার্নাজী, মাউশি রাজশাহী আঞ্চলিক ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক ড. শরমিন ফেরদৌস চৌধুরী।

প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন- উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট রাজশাহীর পরিচালক অধ্যাপক মো. ওয়াহেদুল কবির সুহার্দী।