ঢাকা ০৪:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্ত্রীর মরদেহ ঘরে, পার্কিংয়ে স্বামীর

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৩:৩২:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪ ২৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর কোনাপাড়া এলাকার পশ্চিম মোমেনবাগের আড়াবাড়ি বটতলার একটি বাসা থেকে এক দম্পতির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) ভোরে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতরা হলো- শফিকুর রহমান (৬০) ও তার স্ত্রী ফরিদা ইয়াসমিন (৫০)।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সকালে জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ বাসার নিচতলার পার্কিংয়ে শফিকুরের মরদেহ দেখতে পায়। তার গলা ও মাথায় অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরে দোতলায় শোবার ঘরে মশারির ভেতর স্ত্রী ফরিদার মরদেহ পাওয়া যায়। তার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

পুলিশের ওয়ারী বিভাগের উপকমিশনার মো. ইকবাল হোসাইন এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটি ডাকাতি, নাকি পরিকল্পিত হত্যা, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে বাসার আলমারি খোলা রয়েছে।

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি আবুল হাসান এ বিষয়ে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, বৃহস্পতিবার (২০ জুন) ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে। শফিকুর নামাজ পড়ে ফেরার সময় ওৎ পেতে থাকা খুনিরা তাকে প্রথমে হত্যা করে থাকতে পারে। এমনটাই ধারনা পুলিশের। তারপর তারা তার স্ত্রীকে হত্যা করে। ঘরের দোতলার দরজা খোলা ছিলো। শফিকুরের কাছে বাসার প্রধান ফটকের চাবি পাওয়া গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

স্ত্রীর মরদেহ ঘরে, পার্কিংয়ে স্বামীর

সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৩:৩২:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর কোনাপাড়া এলাকার পশ্চিম মোমেনবাগের আড়াবাড়ি বটতলার একটি বাসা থেকে এক দম্পতির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) ভোরে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতরা হলো- শফিকুর রহমান (৬০) ও তার স্ত্রী ফরিদা ইয়াসমিন (৫০)।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সকালে জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ বাসার নিচতলার পার্কিংয়ে শফিকুরের মরদেহ দেখতে পায়। তার গলা ও মাথায় অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরে দোতলায় শোবার ঘরে মশারির ভেতর স্ত্রী ফরিদার মরদেহ পাওয়া যায়। তার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

পুলিশের ওয়ারী বিভাগের উপকমিশনার মো. ইকবাল হোসাইন এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটি ডাকাতি, নাকি পরিকল্পিত হত্যা, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে বাসার আলমারি খোলা রয়েছে।

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি আবুল হাসান এ বিষয়ে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, বৃহস্পতিবার (২০ জুন) ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে। শফিকুর নামাজ পড়ে ফেরার সময় ওৎ পেতে থাকা খুনিরা তাকে প্রথমে হত্যা করে থাকতে পারে। এমনটাই ধারনা পুলিশের। তারপর তারা তার স্ত্রীকে হত্যা করে। ঘরের দোতলার দরজা খোলা ছিলো। শফিকুরের কাছে বাসার প্রধান ফটকের চাবি পাওয়া গেছে।