ঢাকা ০৩:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পাহাড় ধসে একদিনে চারজনের মৃত্যু

কক্সবাজার প্রতিনিধি
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ১২:০২:০৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪ ৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কক্সবাজারে পাহাড় ধসে একদিনে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে রয়েছে দুই নারী ও দুই শিশু। বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) রাত ৮টার দিকে শহরের কলাতলী সৈকতপাড়া এলাকায় পাহাড় ধসে পড়ে একই পরিবারের আটজন মাটিচাপা পড়ে। এ ঘটনায় বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের জীবিত উদ্ধার করা গেলেও মিম নামের এক শিশুকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা সাঈদ আনোয়ার বলেন, গাছ এবং পাহাড় ধসে একই পরিবারের ৮ জন মাটির নিচে চাপা পড়ে । পরে পুলিশ, ফায়ারসার্ভিস এবং স্থানীয়রা মিলে ৭ জনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও মিম নামের এক শিশুকে বাঁচানো যায়নি। এর আগে বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিকেলে সদরের ঝিলংজায় লায়লা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূ পাহাড় ধসে মারা যায়। এ ঘটনায় তাদের দুই বছরের শিশু মোহাম্মদ জুনায়েদ গুরুতর আহত হয়ে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকাল ৬টার দিকে পাহাড় ধসের পৃথক ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। শহরের ৬নং ওয়ার্ডের পূর্ব পল্যান কাটা এলাকায় বসতঘরে পাহাড় ধসে মোহাম্মদ করিমের স্ত্রী জমিলা বেগম (৩০) মারা যান। এছাড়া শহরের ৭নং ওয়ার্ডের সিকদার বাজার এলাকায় মাটির দেয়াল চাপা পড়ে মৃত্যু হয় সাইফুলের ছেলে মো হাসানের (১০)।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রকিবুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। পাহাড় ধসের ঘটনায় দুই নারী ও দুই শিশু নিহত হয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

পাহাড় ধসে একদিনে চারজনের মৃত্যু

সংবাদ প্রকাশের সময় : ১২:০২:০৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪

কক্সবাজারে পাহাড় ধসে একদিনে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে রয়েছে দুই নারী ও দুই শিশু। বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) রাত ৮টার দিকে শহরের কলাতলী সৈকতপাড়া এলাকায় পাহাড় ধসে পড়ে একই পরিবারের আটজন মাটিচাপা পড়ে। এ ঘটনায় বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের জীবিত উদ্ধার করা গেলেও মিম নামের এক শিশুকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা সাঈদ আনোয়ার বলেন, গাছ এবং পাহাড় ধসে একই পরিবারের ৮ জন মাটির নিচে চাপা পড়ে । পরে পুলিশ, ফায়ারসার্ভিস এবং স্থানীয়রা মিলে ৭ জনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও মিম নামের এক শিশুকে বাঁচানো যায়নি। এর আগে বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিকেলে সদরের ঝিলংজায় লায়লা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূ পাহাড় ধসে মারা যায়। এ ঘটনায় তাদের দুই বছরের শিশু মোহাম্মদ জুনায়েদ গুরুতর আহত হয়ে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকাল ৬টার দিকে পাহাড় ধসের পৃথক ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। শহরের ৬নং ওয়ার্ডের পূর্ব পল্যান কাটা এলাকায় বসতঘরে পাহাড় ধসে মোহাম্মদ করিমের স্ত্রী জমিলা বেগম (৩০) মারা যান। এছাড়া শহরের ৭নং ওয়ার্ডের সিকদার বাজার এলাকায় মাটির দেয়াল চাপা পড়ে মৃত্যু হয় সাইফুলের ছেলে মো হাসানের (১০)।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রকিবুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। পাহাড় ধসের ঘটনায় দুই নারী ও দুই শিশু নিহত হয়েছেন।