ঢাকা ০৮:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জবি ছাত্রকে হত্যা: ৭ আসামির যাবজ্জীবন

সুজন কুমার মন্ডল, জয়পুরহাট
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৭:৪৬:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪ ৬৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

জয়পুরহাটে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র আব্দুর রহিম হত্যা মামলায় সেনাবাহিনী ও বিজিবি সদস্যসহ ৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সাথে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জরিমানা অনাদাে দুই বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

রবিবার (২৪ মার্চ) দুপুরে অতিরিক্ত দায়রা জজ-১ আদালতের বিচারক নুরুল ইসলাম এ রায় প্রদান করেন। জয়পুরহাট আদালতের সরকারি কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলো- ফরহাদ আলী সরদার ঝন্টু, মাহমুদ তারিক, আ: গফুর, সোহাগ,তৌফিকুল ইসলাম, সেনাবাহিনীর সদস্য জুয়েল হোসেন বখতিয়ার, হাসিবুল হাসান । এরমধ্যে ৫ আসামি পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন এমএ ছাত্র আব্দুর রহিম ২০০০ সালের ৭ জানুয়ারি ঈদ উদযাপনে বাড়ি আসেন। ১১ জানুয়ারি সে বিকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর বাড়ি ফিরেননি। এর পরদিন সকালে একটি পুকুরপাড় থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা রয়েছে, আব্দুর রহিম পার্শ্ববর্তী বেগুনবাড়ি গ্রামের এক মেয়ের বাড়িতে যাওয়া আসা করতেন। আসামী ঝন্টু সেই মেয়েকে বিয়ে করতে চায়। এরই জেড়ে এ হত্যাকান্ড ঘটে।

এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই আসাদুল ইসলাম বাবুল বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে বিজ্ঞ আদালত আজ এ রায় দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

জবি ছাত্রকে হত্যা: ৭ আসামির যাবজ্জীবন

সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৭:৪৬:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪

জয়পুরহাটে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র আব্দুর রহিম হত্যা মামলায় সেনাবাহিনী ও বিজিবি সদস্যসহ ৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সাথে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জরিমানা অনাদাে দুই বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

রবিবার (২৪ মার্চ) দুপুরে অতিরিক্ত দায়রা জজ-১ আদালতের বিচারক নুরুল ইসলাম এ রায় প্রদান করেন। জয়পুরহাট আদালতের সরকারি কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলো- ফরহাদ আলী সরদার ঝন্টু, মাহমুদ তারিক, আ: গফুর, সোহাগ,তৌফিকুল ইসলাম, সেনাবাহিনীর সদস্য জুয়েল হোসেন বখতিয়ার, হাসিবুল হাসান । এরমধ্যে ৫ আসামি পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন এমএ ছাত্র আব্দুর রহিম ২০০০ সালের ৭ জানুয়ারি ঈদ উদযাপনে বাড়ি আসেন। ১১ জানুয়ারি সে বিকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর বাড়ি ফিরেননি। এর পরদিন সকালে একটি পুকুরপাড় থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা রয়েছে, আব্দুর রহিম পার্শ্ববর্তী বেগুনবাড়ি গ্রামের এক মেয়ের বাড়িতে যাওয়া আসা করতেন। আসামী ঝন্টু সেই মেয়েকে বিয়ে করতে চায়। এরই জেড়ে এ হত্যাকান্ড ঘটে।

এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই আসাদুল ইসলাম বাবুল বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে বিজ্ঞ আদালত আজ এ রায় দেন।