ঢাকা ০২:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এমপি আনার হত্যা/ এবার নজরে ৬ নায়িকা

বিশেষ প্রতিবেদক
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৫:২১:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪ ৫৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কলকাতায় চিকিৎসা করাতে গিয়ে হত্যার শিকার হয়েছেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার। ঘটনার একমাস পেরিয়ে গেলেও তার হত্যা রহস্যের জট খোলেনি। তদন্তে উঠে আসছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য।

এবার তদন্তকারীদের আতশকাঁচের নিচে ছয় নায়িকা ও মডেল। এরমধ্যে একজন নাকি আবার কলকাতার একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন। খুবই শীঘ্রই তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে, সূত্রের খবর।

নৃশংসতম হত্যার কারণ হিসাবে উঠে এসেছে একাধিক কারণ। হত্যার কারণ হিসেবে প্রথমে মনে করা হয়েছিলো, হুণ্ডি কারবার ও কলকাতায় সোনা চোরাচালানের বিশাল অঙ্কের টাকা ভাগবাটোয়ারা নিয়ে খুন। এরপর এই হত্যাকাণ্ডে নাম জড়ায় আওয়ামী লীগের দুই নেতার। ফলে রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের কারণে হত্যার বিষয়টিও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তদন্তকারীরা।

তবে নতুন করে হত্যাকাণ্ডে গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডের যোগও খুঁজে পেয়েছেন তদন্তকারীরা। জানা গেছে, নজরে থাকার ছয় নায়িকার মধ্যে একজনের সাথে কলকাতায় সময় কাটিয়েছিলেন এমপি আনোয়ারুল।

গত মঙ্গলবার বিকেলে এমপি আনার হত্যার ঘটনায় ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ঢাকার ধানমন্ডি এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়েছে।

আনোয়ারুল হত্যার ঘটনায় জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক কাজি কামাল গিয়াস আহমেদ বাবু ওরফে গ্যাস বাবু গ্রেপ্তার হওয়ার পর ঝিনাইদহের ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের জড়িত হওয়ার বিষয়টি সামনে আসতে শুরু করে। এরপর পুলিশ হেফাজতে নেয় মিন্টুকে। গোয়েন্দারা এখন জেলার নেতাদের নজরদারিতে রাখা শুরু করেছেন। খুনের মোটিভ জানতে সংগ্রহ করা হচ্ছে সবার বায়োডাটা।

ইতিমধ্যে এমপি আনোয়ারুলের হত্যায় এক তরুণীসহ আরও ৩ জনের জড়িত থাকার তথ্য পেয়েছে তদন্ত সংস্থা ডিবি। তাদের নাম- তাজ মহম্মদ খান ওরফে হাজি, মহম্মদ জামাল হোসেন ও চেলসি চেরি ওরফে আরিয়া।

মামলার তদন্তকারীরা ১০ অভিযুক্তের ব্যাঙ্কের হিসেবের তথ্য পেতে আদালতে আবেদন করেছিলেন। আর সেই তালিকায় রয়েছে তাদের নাম। যদিও চেরি ছাড়া এর আগে বাকিদের নাম আলোচনায় উঠে আসেনি। কারণ এই চেরি ওরফে আরিয়াকেও মূল অভিযুক্ত শাহিনের বান্ধবী হিসেবে চেনে সবাই। এর ফলে যতো দিন গড়াচ্ছে ততোই নতুন তথ্য সামনে আসছে এমপি আনার হত্যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

এমপি আনার হত্যা/ এবার নজরে ৬ নায়িকা

সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৫:২১:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

কলকাতায় চিকিৎসা করাতে গিয়ে হত্যার শিকার হয়েছেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার। ঘটনার একমাস পেরিয়ে গেলেও তার হত্যা রহস্যের জট খোলেনি। তদন্তে উঠে আসছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য।

এবার তদন্তকারীদের আতশকাঁচের নিচে ছয় নায়িকা ও মডেল। এরমধ্যে একজন নাকি আবার কলকাতার একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন। খুবই শীঘ্রই তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে, সূত্রের খবর।

নৃশংসতম হত্যার কারণ হিসাবে উঠে এসেছে একাধিক কারণ। হত্যার কারণ হিসেবে প্রথমে মনে করা হয়েছিলো, হুণ্ডি কারবার ও কলকাতায় সোনা চোরাচালানের বিশাল অঙ্কের টাকা ভাগবাটোয়ারা নিয়ে খুন। এরপর এই হত্যাকাণ্ডে নাম জড়ায় আওয়ামী লীগের দুই নেতার। ফলে রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের কারণে হত্যার বিষয়টিও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তদন্তকারীরা।

তবে নতুন করে হত্যাকাণ্ডে গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডের যোগও খুঁজে পেয়েছেন তদন্তকারীরা। জানা গেছে, নজরে থাকার ছয় নায়িকার মধ্যে একজনের সাথে কলকাতায় সময় কাটিয়েছিলেন এমপি আনোয়ারুল।

গত মঙ্গলবার বিকেলে এমপি আনার হত্যার ঘটনায় ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ঢাকার ধানমন্ডি এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়েছে।

আনোয়ারুল হত্যার ঘটনায় জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক কাজি কামাল গিয়াস আহমেদ বাবু ওরফে গ্যাস বাবু গ্রেপ্তার হওয়ার পর ঝিনাইদহের ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের জড়িত হওয়ার বিষয়টি সামনে আসতে শুরু করে। এরপর পুলিশ হেফাজতে নেয় মিন্টুকে। গোয়েন্দারা এখন জেলার নেতাদের নজরদারিতে রাখা শুরু করেছেন। খুনের মোটিভ জানতে সংগ্রহ করা হচ্ছে সবার বায়োডাটা।

ইতিমধ্যে এমপি আনোয়ারুলের হত্যায় এক তরুণীসহ আরও ৩ জনের জড়িত থাকার তথ্য পেয়েছে তদন্ত সংস্থা ডিবি। তাদের নাম- তাজ মহম্মদ খান ওরফে হাজি, মহম্মদ জামাল হোসেন ও চেলসি চেরি ওরফে আরিয়া।

মামলার তদন্তকারীরা ১০ অভিযুক্তের ব্যাঙ্কের হিসেবের তথ্য পেতে আদালতে আবেদন করেছিলেন। আর সেই তালিকায় রয়েছে তাদের নাম। যদিও চেরি ছাড়া এর আগে বাকিদের নাম আলোচনায় উঠে আসেনি। কারণ এই চেরি ওরফে আরিয়াকেও মূল অভিযুক্ত শাহিনের বান্ধবী হিসেবে চেনে সবাই। এর ফলে যতো দিন গড়াচ্ছে ততোই নতুন তথ্য সামনে আসছে এমপি আনার হত্যায়।