ঢাকা ০৮:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘ স্মার্ট জেনারেশন তৈরিতে এআই আইন গুরুত্বপূর্ণ’

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৬:২৯:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল ২০২৪ ৭১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে স্মার্ট বাংলাদেশ ও স্মার্ট জেনারেশন ( প্রজন্ম) তৈরির ঘোষণা দিয়েছেন, তা বাস্তবায়নের জন্য কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার অত্যন্ত প্রয়োজন । কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ভালো- মন্দ উভয় দিকই রয়েছে । এতে ভীত হওয়ার কিছু নেই । মন্দ দিকগুলো নিয়ন্ত্রণের জন্যই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা( এআই) আইন প্রণয়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে ।

বৃহস্পতিবার ( ৪ এপ্রিল) আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন( বিটিআরসি) ভবনে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা আইন, ২০২৪ এর খসড়া তৈরি নিয়ে অংশীজন সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন ।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার সরকারের আইন প্রণয়নের একটি কর্মপদ্ধতি রয়েছে । যখন কোন আইন প্রণয়ন করা হয় তখন এই পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়। অংশীজনদের সাথে কথা বলে তাদের মতামত নেয়া হয় । তাদের মতামত নিয়ে আইন করা হয় ।

মন্ত্রী আরও বলেন, কোন আইনের একটি খসড়া তৈরি করে অংশীজনদের সাথে আলোচনা করা হতো । এখন অংশীজনদের মতামত নিয়েই খসড়া তৈরি করতে চাই । আর সে কারণেই এআই আইনের অংশীজনদের নিয়ে এই সভা।

তিনি বলেন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এগিয়ে যাচ্ছে। তাই আইন না করে উপায় নেই ।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব মোঃ সামসুল আরেফিন, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব গোলাম সারওয়ার, বিটিআরসির চেয়ারম্যান মোঃ মহিউদ্দিন আহমেদ ও ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুল হক সহ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, দপ্তর ও সংস্থার প্রতিনিধিসহ সরকারি- বেসরকারি অন্যান্য স্টেকহোল্ডাররা সভায় অংশ নেন । তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এ সভার আয়োজন করে ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

‘ স্মার্ট জেনারেশন তৈরিতে এআই আইন গুরুত্বপূর্ণ’

সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৬:২৯:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল ২০২৪

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে স্মার্ট বাংলাদেশ ও স্মার্ট জেনারেশন ( প্রজন্ম) তৈরির ঘোষণা দিয়েছেন, তা বাস্তবায়নের জন্য কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার অত্যন্ত প্রয়োজন । কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ভালো- মন্দ উভয় দিকই রয়েছে । এতে ভীত হওয়ার কিছু নেই । মন্দ দিকগুলো নিয়ন্ত্রণের জন্যই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা( এআই) আইন প্রণয়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে ।

বৃহস্পতিবার ( ৪ এপ্রিল) আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন( বিটিআরসি) ভবনে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা আইন, ২০২৪ এর খসড়া তৈরি নিয়ে অংশীজন সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন ।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার সরকারের আইন প্রণয়নের একটি কর্মপদ্ধতি রয়েছে । যখন কোন আইন প্রণয়ন করা হয় তখন এই পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়। অংশীজনদের সাথে কথা বলে তাদের মতামত নেয়া হয় । তাদের মতামত নিয়ে আইন করা হয় ।

মন্ত্রী আরও বলেন, কোন আইনের একটি খসড়া তৈরি করে অংশীজনদের সাথে আলোচনা করা হতো । এখন অংশীজনদের মতামত নিয়েই খসড়া তৈরি করতে চাই । আর সে কারণেই এআই আইনের অংশীজনদের নিয়ে এই সভা।

তিনি বলেন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এগিয়ে যাচ্ছে। তাই আইন না করে উপায় নেই ।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব মোঃ সামসুল আরেফিন, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব গোলাম সারওয়ার, বিটিআরসির চেয়ারম্যান মোঃ মহিউদ্দিন আহমেদ ও ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুল হক সহ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, দপ্তর ও সংস্থার প্রতিনিধিসহ সরকারি- বেসরকারি অন্যান্য স্টেকহোল্ডাররা সভায় অংশ নেন । তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এ সভার আয়োজন করে ।