ঢাকা ০২:৫০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত সিকিম, আটকা দেড় হাজার পর্যটক

বাংলা টাইমস ডেস্ক
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ১২:৪৪:৫৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪ ৫২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

টানা বৃষ্টিতে ধসের ঘটনায় বিপর্যস্ত উত্তর সিকিম। ফলে সারা দেশের সাথেই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে পর্যটনের জন্য বিখ্যাত লাচুং, লাচেনসহ বহু এলাকার। এক প্রতিবেদনে সংবাদ সংস্থা পিটিআই এই তথ্য জানিয়েছে।

পিটিআই জানায়, এখনো পর্যন্ত কমপক্ষে দেড় হাজার পর্যটক আটকে আছে। এই বিপর্যয়ের ফলে অন্তত ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গনের জেলা শাসক হেমকুমার ছেত্রী বলেছেন, পাকশেপ ও অম্ভিথাং এই দুই গ্রামে মোট ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

দেশটির জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, মঙ্গন ও চুংথাংয়ের সংযোগকারী বেইলি সেতুটি ভেঙে গেছে। বন্ধ হয়ে গেছে সড়ক যোগাযোগ। বহু বাড়ি লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। ভেঙে গেছে বিদ্যুতের খুঁটি। এ অবস্থায় বুধবার (১২ জুন) রাতে সরকারি কর্মকর্তারা বৈঠকে বসেছিলেন। কীভাবে উদ্ধারকাজ চালানো হবে। ত্রাণ পৌঁছে দেয়া হবে। সেই সব বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় বৈঠকে।

সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী প্রেমসিংহ তামাং এ অবস্থার মধ্যে অরুণাচল প্রদেশে মুখ্যমন্ত্রীর শপথ অনুষ্ঠানে গেছেন। সেখান থেকে তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের কাছে সাহায্য পৌঁছে দেয়ার চেষ্টা চলছে। ক্ষতিগ্রস্তদের নিরাপদ আশ্রয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে সরকার।

সিকিমের এই পরিস্থিতির জেরে বিপর্যস্ত ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক। এ পরিস্থিতিতে পর্যটকের যাতায়াতের জন্য বিকল্প পথ বলে দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের কালিম্পঙের জেলা প্রশাসন।

জানানো হয়, আপাতত ছোট গাড়ি মানসং-১৭ মাইল-আলগাড়া-লাভা-গরুবাথান হয়ে শিলিগুড়ি যাতায়াত করতে পারবে। বড় এবং ভারী গাড়িগুলো পেডং-আলগাড়া-লাভা-গরুবাথান হয়ে শিলিগুড়ি যেতে পারবে। এর পাশাপাশি কালিম্পং থেকে দার্জিলিং যেতে ২৭ মাইল থেকে তিস্তা ভ্যালি হয়ে পৌঁছনো যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত সিকিম, আটকা দেড় হাজার পর্যটক

সংবাদ প্রকাশের সময় : ১২:৪৪:৫৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪

টানা বৃষ্টিতে ধসের ঘটনায় বিপর্যস্ত উত্তর সিকিম। ফলে সারা দেশের সাথেই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে পর্যটনের জন্য বিখ্যাত লাচুং, লাচেনসহ বহু এলাকার। এক প্রতিবেদনে সংবাদ সংস্থা পিটিআই এই তথ্য জানিয়েছে।

পিটিআই জানায়, এখনো পর্যন্ত কমপক্ষে দেড় হাজার পর্যটক আটকে আছে। এই বিপর্যয়ের ফলে অন্তত ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গনের জেলা শাসক হেমকুমার ছেত্রী বলেছেন, পাকশেপ ও অম্ভিথাং এই দুই গ্রামে মোট ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

দেশটির জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, মঙ্গন ও চুংথাংয়ের সংযোগকারী বেইলি সেতুটি ভেঙে গেছে। বন্ধ হয়ে গেছে সড়ক যোগাযোগ। বহু বাড়ি লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। ভেঙে গেছে বিদ্যুতের খুঁটি। এ অবস্থায় বুধবার (১২ জুন) রাতে সরকারি কর্মকর্তারা বৈঠকে বসেছিলেন। কীভাবে উদ্ধারকাজ চালানো হবে। ত্রাণ পৌঁছে দেয়া হবে। সেই সব বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় বৈঠকে।

সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী প্রেমসিংহ তামাং এ অবস্থার মধ্যে অরুণাচল প্রদেশে মুখ্যমন্ত্রীর শপথ অনুষ্ঠানে গেছেন। সেখান থেকে তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের কাছে সাহায্য পৌঁছে দেয়ার চেষ্টা চলছে। ক্ষতিগ্রস্তদের নিরাপদ আশ্রয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে সরকার।

সিকিমের এই পরিস্থিতির জেরে বিপর্যস্ত ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক। এ পরিস্থিতিতে পর্যটকের যাতায়াতের জন্য বিকল্প পথ বলে দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের কালিম্পঙের জেলা প্রশাসন।

জানানো হয়, আপাতত ছোট গাড়ি মানসং-১৭ মাইল-আলগাড়া-লাভা-গরুবাথান হয়ে শিলিগুড়ি যাতায়াত করতে পারবে। বড় এবং ভারী গাড়িগুলো পেডং-আলগাড়া-লাভা-গরুবাথান হয়ে শিলিগুড়ি যেতে পারবে। এর পাশাপাশি কালিম্পং থেকে দার্জিলিং যেতে ২৭ মাইল থেকে তিস্তা ভ্যালি হয়ে পৌঁছনো যাবে।