ঢাকা ০৭:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঘরমুখো মানুষের ভিড় বেড়েছে সড়ক-মহাসড়কে

গাজীপুর প্রতিনিধি
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৯:৫৪:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪ ৩৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ঈদের বাকি আর মাত্র একদিন। শেষ সময় ঈদে বাড়ি ফেরা ঘরমুখো মানুষের ভিড় বেড়েছে সড়ক মহাসড়কসহ স্টেশনগুলোতে। গাজীপুরের ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চন্দ্রা ও ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের চান্দনা চৌরাস্তা দিয়ে বাড়ি যাচ্ছেন কর্মজীবীরা। গত তিনদিনে অধিকাংশ পোশাক কারখানায় ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

অনেকে ইতিমধ্যে গন্তব্যে পৌঁছে গেছে। বাকি কারখানাগুলোয় শক্রবার (১৫ জুন) দুপুরের মধ্যে ছুটি হবে। সে ক্ষেত্রে দুপুরের পর সড়ক মহাসড়কে কিছুটা চাপ বাড়বে বলে আশঙ্কা করছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি ট্রাফিক অশোক পাল জানিয়েছেন, সড়কের কোথাও যানজট নেই। স্টেশনগুলোতে যাত্রী উঠানো মার কারণে কিছুটা প্রেসার রয়েছে। থেমে থেমে চলছে গাড়ি তবে দুপুরের পরিস্থিতি মোকাবেলায় অধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়ন করা হয়েছে। মেট্রোপলিটন এলাকায় ৫ শতাধিক আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ঈদ যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে মোতায়েন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

স্টেশনগুলোতে যানবাহন ও যাত্রীদের বাড়তি চাপ থাকলেও এখন পর্যন্ত গাজীপুরের মহাসড়কগুলো যানজট পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। তবে স্টেশনগুলোতে গাড়ির জটলা রয়েছে। ধীর গতিতে চলছে গাড়ি। বাড়তি ভাড়ার চাপ এবং যানবাহন স্বল্পতার জন্য অনেক ঘরমুখো মানুষই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পিকাপ ভ্যান, খোলা ছাদের ট্রাক এবং বাসের ছাদে ভ্রমণ করছেন।

মহাসড়কের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় জেলা, হাইওয়ে ও জিএমপি পুলিশ একযোগে কাজ করছে। যাত্রীদের ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে কাজ করছে বলে জানিয়েছে কর্তব্যরত পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

ঘরমুখো মানুষের ভিড় বেড়েছে সড়ক-মহাসড়কে

সংবাদ প্রকাশের সময় : ০৯:৫৪:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

ঈদের বাকি আর মাত্র একদিন। শেষ সময় ঈদে বাড়ি ফেরা ঘরমুখো মানুষের ভিড় বেড়েছে সড়ক মহাসড়কসহ স্টেশনগুলোতে। গাজীপুরের ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চন্দ্রা ও ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের চান্দনা চৌরাস্তা দিয়ে বাড়ি যাচ্ছেন কর্মজীবীরা। গত তিনদিনে অধিকাংশ পোশাক কারখানায় ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

অনেকে ইতিমধ্যে গন্তব্যে পৌঁছে গেছে। বাকি কারখানাগুলোয় শক্রবার (১৫ জুন) দুপুরের মধ্যে ছুটি হবে। সে ক্ষেত্রে দুপুরের পর সড়ক মহাসড়কে কিছুটা চাপ বাড়বে বলে আশঙ্কা করছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি ট্রাফিক অশোক পাল জানিয়েছেন, সড়কের কোথাও যানজট নেই। স্টেশনগুলোতে যাত্রী উঠানো মার কারণে কিছুটা প্রেসার রয়েছে। থেমে থেমে চলছে গাড়ি তবে দুপুরের পরিস্থিতি মোকাবেলায় অধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়ন করা হয়েছে। মেট্রোপলিটন এলাকায় ৫ শতাধিক আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ঈদ যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে মোতায়েন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

স্টেশনগুলোতে যানবাহন ও যাত্রীদের বাড়তি চাপ থাকলেও এখন পর্যন্ত গাজীপুরের মহাসড়কগুলো যানজট পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। তবে স্টেশনগুলোতে গাড়ির জটলা রয়েছে। ধীর গতিতে চলছে গাড়ি। বাড়তি ভাড়ার চাপ এবং যানবাহন স্বল্পতার জন্য অনেক ঘরমুখো মানুষই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পিকাপ ভ্যান, খোলা ছাদের ট্রাক এবং বাসের ছাদে ভ্রমণ করছেন।

মহাসড়কের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় জেলা, হাইওয়ে ও জিএমপি পুলিশ একযোগে কাজ করছে। যাত্রীদের ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে কাজ করছে বলে জানিয়েছে কর্তব্যরত পুলিশ।