ঢাকা ০৩:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রশ্নফাঁস: পলাতক পিএসসির সাবেক সহকারী পরিচালক

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ১০:২৬:১৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪ ১২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় সরাসরি জড়িত প্রায় ৫০ জন। এরমধ্যে মামলায় ৩১ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। ১৭ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পলাতক বাকি ১৪ জন। তাদের মধ্যে পিএসসির সাবেক সহকারী পরিচালক নিখিল চন্দ্র রায়ও রয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। প্রশ্নফাঁসের ঘটনা তদন্তে থাকা সিআইডির একাধিক কর্মকর্তা একটি সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, নিখিল চন্দ্র রায়ের ফোন বন্ধ থাকায় তার অবস্থান শনাক্ত করতে পারছে না আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।চাকরিতে থাকাকালে সাবেক এই কর্মকর্তা বেশ কয়েকটি বিসিএস পরীক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৯ সালের ৪১তম বিসিএস পরীক্ষার সময় তিনি ইউনিট-১৩-তে প্রশাসনিক কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সেই বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয় ১৯ মার্চ। সেদিন তিনি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ কক্ষের দায়িত্বে ছিলেন।

সিআইডির সাইবার ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড অপারেশনস বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন, পলাতকদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

অন্যদিকে, যারা পলাতক রয়েছে তারা যেন বিদেশ যেতে না পারেন সেজন্য সতর্কতা অবলম্বন করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। দেশের প্রত্যেকটি বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন, স্থল ও সীমান্ত এলাকায় তাদের বিষয়ে জানিয়ে রাখা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সূত্রে এসব তথ্য।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

প্রশ্নফাঁস: পলাতক পিএসসির সাবেক সহকারী পরিচালক

সংবাদ প্রকাশের সময় : ১০:২৬:১৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪

প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় সরাসরি জড়িত প্রায় ৫০ জন। এরমধ্যে মামলায় ৩১ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। ১৭ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পলাতক বাকি ১৪ জন। তাদের মধ্যে পিএসসির সাবেক সহকারী পরিচালক নিখিল চন্দ্র রায়ও রয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। প্রশ্নফাঁসের ঘটনা তদন্তে থাকা সিআইডির একাধিক কর্মকর্তা একটি সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, নিখিল চন্দ্র রায়ের ফোন বন্ধ থাকায় তার অবস্থান শনাক্ত করতে পারছে না আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।চাকরিতে থাকাকালে সাবেক এই কর্মকর্তা বেশ কয়েকটি বিসিএস পরীক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৯ সালের ৪১তম বিসিএস পরীক্ষার সময় তিনি ইউনিট-১৩-তে প্রশাসনিক কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সেই বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয় ১৯ মার্চ। সেদিন তিনি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ কক্ষের দায়িত্বে ছিলেন।

সিআইডির সাইবার ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড অপারেশনস বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন, পলাতকদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

অন্যদিকে, যারা পলাতক রয়েছে তারা যেন বিদেশ যেতে না পারেন সেজন্য সতর্কতা অবলম্বন করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। দেশের প্রত্যেকটি বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন, স্থল ও সীমান্ত এলাকায় তাদের বিষয়ে জানিয়ে রাখা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সূত্রে এসব তথ্য।