ঢাকা ১২:৫৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুলিশের হয়রানির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ১১:০১:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪ ২২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মারধরের শিকারের পর পুলিশি হয়রানির প্রতিবাদে ও সুষ্ঠ তদন্তের দাবিতে হিন্দু পরিবারের সংবাদ সম্মেলন করেছে। বুধবার (২৬ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সদর উপজেলার বারঘোরিয়া এলাকায় এই সংবাদ সম্মেলন করেন ভুক্তভোগির পরিবার।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন বারঘোরিয়া-তহসিলপাড়ার শ্রী রতন কুমার পাল। তিনি পেশায় রঙ মিস্ত্রি।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধে গত ২৬ জানুয়ারি রতন কুমার পাল, তার বড় ভাই কার্তিক কুমার পাল ও ভাবী চায়না রানীর উপর হামলা চালায় প্রতিপক্ষের লোকজন। ২৯ জানুয়ারি এ ঘটনায় প্রতিবেশি কমল পাল, সুবোল পাল, বলরাম পালসহ ৭ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনকে আসামী করে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা, শ্লীলতাহানি ও লুটপাটের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন কার্তিক কুমার পাল। কিন্তু মামলা দায়েরের পর ৫ মাস পার হয়ে গেলেও চাহিদা মতো টাকা না পাওয়ায় চার্জশীট দেয়নি সদর মডেল থানা এসআই মাহবুবুর রহমান।

সংবাদ সম্মেলনে রতন কুমার পাল বলেন, মামলার খরচ বাবদ ১২ হাজার টাকা দেয়া হয় তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মাহবুবুর রহমানকে। কিন্তু চার্জশীট দেয়ার জন্য আরও ৬০ হাজার টাকা দাবি করেন তিনি। চাহিদা অনুযায়ী টাকা দিতে না পারায় মামলার চার্জশীট দেয়া হচ্ছে না। সংবাদ সম্মেলনে রতন কুমার সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন পুলিশ প্রশাসন।

তবে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাহবুবুর রহমান ঘুষের টাকার নেয়ার বিষয়ট অস্বীকার করেন। আর এ মামলার চার্জশীট প্রদান করা হয় গত ১৭ জুন। যার সিএস নম্বর ২৯২।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

পুলিশের হয়রানির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

সংবাদ প্রকাশের সময় : ১১:০১:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪

মারধরের শিকারের পর পুলিশি হয়রানির প্রতিবাদে ও সুষ্ঠ তদন্তের দাবিতে হিন্দু পরিবারের সংবাদ সম্মেলন করেছে। বুধবার (২৬ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সদর উপজেলার বারঘোরিয়া এলাকায় এই সংবাদ সম্মেলন করেন ভুক্তভোগির পরিবার।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন বারঘোরিয়া-তহসিলপাড়ার শ্রী রতন কুমার পাল। তিনি পেশায় রঙ মিস্ত্রি।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধে গত ২৬ জানুয়ারি রতন কুমার পাল, তার বড় ভাই কার্তিক কুমার পাল ও ভাবী চায়না রানীর উপর হামলা চালায় প্রতিপক্ষের লোকজন। ২৯ জানুয়ারি এ ঘটনায় প্রতিবেশি কমল পাল, সুবোল পাল, বলরাম পালসহ ৭ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনকে আসামী করে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা, শ্লীলতাহানি ও লুটপাটের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন কার্তিক কুমার পাল। কিন্তু মামলা দায়েরের পর ৫ মাস পার হয়ে গেলেও চাহিদা মতো টাকা না পাওয়ায় চার্জশীট দেয়নি সদর মডেল থানা এসআই মাহবুবুর রহমান।

সংবাদ সম্মেলনে রতন কুমার পাল বলেন, মামলার খরচ বাবদ ১২ হাজার টাকা দেয়া হয় তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মাহবুবুর রহমানকে। কিন্তু চার্জশীট দেয়ার জন্য আরও ৬০ হাজার টাকা দাবি করেন তিনি। চাহিদা অনুযায়ী টাকা দিতে না পারায় মামলার চার্জশীট দেয়া হচ্ছে না। সংবাদ সম্মেলনে রতন কুমার সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন পুলিশ প্রশাসন।

তবে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাহবুবুর রহমান ঘুষের টাকার নেয়ার বিষয়ট অস্বীকার করেন। আর এ মামলার চার্জশীট প্রদান করা হয় গত ১৭ জুন। যার সিএস নম্বর ২৯২।