ঢাকা ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চিকিৎসকের পর্যবেক্ষণে থাকবেন খালেদা জিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১১:১৩:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪ ২৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ১০ দিন পর গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা’য় ফিরেছেন। মঙ্গলবার (২ জুলাই) সন্ধ্যায় তিনি রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরেন।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. জেড এম জাহিদ হোসেন জানান, মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী খালেদা জিয়াকে বাসায় নেয়া হচ্ছে। তাকে বাসায় নেয়া হচ্ছে হাসপাতাল থেকে সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে। সেখানেও তিনি চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থাকবেন।

হৃদযন্ত্রে সফলভাবে পেসমেকার বসানোর ২৪ ঘণ্টা পর গত ২৪ জুন হাসপাতালের সিসিইউ থেকে কেবিনে নেয়া হয় খালেদা জিয়াকে।

এর আগে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে নেয়া হয় খালেদা জিয়াকে। সেখানে তাকে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়।

৭৯ বছর বয়সী খালেদা জিয়া ডায়াবেটিস, হৃদ্‌রোগ, লিভার, ফুসফুস, কিডনিজটিলতাসহ বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ২৫ মার্চ সরকার ফৌজদারি কার্যবিধির (সিআরপিসি) ৪০১ (১) ধারা অনুযায়ী কারাদণ্ড স্থগিত করে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয়। এরপর থেকে কয়েক দফায় তার মেয়াদ বাড়িয়েছে সরকার।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ঢাকার একটি বিশেষ আদালতে ৫ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হওয়ার পর ২০১৭ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি কারাগারে যান খালেদা জিয়া। এর পরের বছর ২০২১ সালের ৩০ অক্টোবর হাইকোর্ট এই মামলায় তার আপিল খারিজ করে দেয়ার পর শাস্তি বাড়িয়ে ১০ বছর করে।

এর আগে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ২০১৮ সালের ২৯ অক্টোবর ঢাকার আরেকটি বিশেষ আদালত সাবেক খালেদা জিয়াকে দোষী সাব্যস্ত করে। তখন তাকে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

চিকিৎসকের পর্যবেক্ষণে থাকবেন খালেদা জিয়া

আপডেট সময় : ১১:১৩:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ১০ দিন পর গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা’য় ফিরেছেন। মঙ্গলবার (২ জুলাই) সন্ধ্যায় তিনি রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরেন।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. জেড এম জাহিদ হোসেন জানান, মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী খালেদা জিয়াকে বাসায় নেয়া হচ্ছে। তাকে বাসায় নেয়া হচ্ছে হাসপাতাল থেকে সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে। সেখানেও তিনি চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থাকবেন।

হৃদযন্ত্রে সফলভাবে পেসমেকার বসানোর ২৪ ঘণ্টা পর গত ২৪ জুন হাসপাতালের সিসিইউ থেকে কেবিনে নেয়া হয় খালেদা জিয়াকে।

এর আগে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে নেয়া হয় খালেদা জিয়াকে। সেখানে তাকে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়।

৭৯ বছর বয়সী খালেদা জিয়া ডায়াবেটিস, হৃদ্‌রোগ, লিভার, ফুসফুস, কিডনিজটিলতাসহ বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ২৫ মার্চ সরকার ফৌজদারি কার্যবিধির (সিআরপিসি) ৪০১ (১) ধারা অনুযায়ী কারাদণ্ড স্থগিত করে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয়। এরপর থেকে কয়েক দফায় তার মেয়াদ বাড়িয়েছে সরকার।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ঢাকার একটি বিশেষ আদালতে ৫ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হওয়ার পর ২০১৭ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি কারাগারে যান খালেদা জিয়া। এর পরের বছর ২০২১ সালের ৩০ অক্টোবর হাইকোর্ট এই মামলায় তার আপিল খারিজ করে দেয়ার পর শাস্তি বাড়িয়ে ১০ বছর করে।

এর আগে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ২০১৮ সালের ২৯ অক্টোবর ঢাকার আরেকটি বিশেষ আদালত সাবেক খালেদা জিয়াকে দোষী সাব্যস্ত করে। তখন তাকে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়।