ঢাকা ০৯:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের মানতে হবে নিয়ম-কানুন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : ০২:০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুন ২০২৪ ৪৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা টাইমস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হবে আজ রোববার (৩০ জুন)। সময়সূচি অনুযায়ী প্রথমদিনে অনুষ্ঠিত হবে বাংলা প্রথমপত্রের পরীক্ষা। আর মাদরাসা বোর্ডের অধীনে আলিম পরীক্ষায় কোরআন মাজিদ বিষয়। এছাড়া কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসির (বিএম/বিএমটি) বাংলা-২ বিষয়ের পরীক্ষা।

এবছর দেশের ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি/ আলিম/ এইচএসসি (বিএম/বিএমটি)/ এইচএসসি(ভোকেশনাল)/ ডিপ্লোমা ইন কমার্স পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী ১৪ লাখ ৫০ হাজার ৭৯০ জন। এরমধ্যে ছাত্রের সংখ্যা ৭ লাখ ৫০ হাজার ২৮১ জন। আর ছাত্রীর সংখা ৭ লাখ ৫০৯ জন। মোট পরীক্ষা কেন্দ্র ২ হাজার ৭২৫টি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ৯ হাজার ৪৬৩টি।

এদিকে, বন্যা পরিস্থিতির কারণে সিলেট অঞ্চলের চারটি জেলার পরীক্ষা ৮ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। এসব জেলায় আগামী ৯ জুলাই থেকে পূর্বঘোষিত সময়সূচি মেনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এক্ষেত্রে স্থগিত পরীক্ষাগুলোর সময়সূচি পরবর্তীতে করবে স্ব স্ব বোর্ডপ্রকাশ। একই সথে ৮ জুলাইয়ের পর আর কোনো পরীক্ষা স্থগিত করা হবে না বলেও জানিয়েছে সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড।

চলতি বছরও এইচএসসি পরীক্ষা পুনর্বিনাস করা পাঠ্যসূচি (সিলেবাস) অনুযায়ী সব বিষয়ে পূর্ণ নম্বর ও পূর্ণ সময়ে পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

বরাবরের মতো এবারো এইচএসসি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে কিছু নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষাবোর্ডগুলো। তা হলো-

১.পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে অবশ্যই পরীক্ষার কক্ষে প্রবেশ করতে হবে। কোনো কারণে কোনো পরীক্ষার্থীকে এর পরে প্রবেশ করতে দেয়া হলে তার নাম, রোল নম্বর, প্রবেশের সময়, এমনকি দেরি হওয়ার কারণ রেজিস্ট্রারে লিখে সংশ্লিষ্ট শিক্ষাবোর্ডে প্রতিবেদন দিতে হবে।

২. পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় শুধুমাত্র সাধারণ সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে। প্রোগ্রামিং কোনো ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে না।

৩. পরীক্ষাকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। কোনো পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন নিয়ে আসতে পারবে না।

৪. পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে সংশ্লিষ্টদের কাছে প্রশ্নপত্রের সেট কোড জানিয়ে দেয়া হবে। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কেউ মোবাইল ফোন নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। ছবি তোলা যায় না এমন মোবাইল শুধু ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ব্যবহার করতে পারবেন।

৫. পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ছাড়া অন্য কেউই কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না।

৬. বিশেষ সক্ষম (ডিফারেন্টলি অ্যাবল) পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ কিছু ব্যবস্থা করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরমধ্যে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রালপালসি জনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই, এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী স্ক্রাইব (শ্রুতি লেখক) সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। এ ধরনের পরীক্ষার্থীদের এবং শ্রবণ পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট বাড়ানো হয়েছে।

৭. প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় বাড়ানোসহ শিক্ষক, অভিভাবক বা সাহায্যকারীর বিশেষ সহযোগিতায় পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ রেখেছে সরকার।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের মানতে হবে নিয়ম-কানুন

সংবাদ প্রকাশের সময় : ০২:০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুন ২০২৪

চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হবে আজ রোববার (৩০ জুন)। সময়সূচি অনুযায়ী প্রথমদিনে অনুষ্ঠিত হবে বাংলা প্রথমপত্রের পরীক্ষা। আর মাদরাসা বোর্ডের অধীনে আলিম পরীক্ষায় কোরআন মাজিদ বিষয়। এছাড়া কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসির (বিএম/বিএমটি) বাংলা-২ বিষয়ের পরীক্ষা।

এবছর দেশের ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি/ আলিম/ এইচএসসি (বিএম/বিএমটি)/ এইচএসসি(ভোকেশনাল)/ ডিপ্লোমা ইন কমার্স পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী ১৪ লাখ ৫০ হাজার ৭৯০ জন। এরমধ্যে ছাত্রের সংখ্যা ৭ লাখ ৫০ হাজার ২৮১ জন। আর ছাত্রীর সংখা ৭ লাখ ৫০৯ জন। মোট পরীক্ষা কেন্দ্র ২ হাজার ৭২৫টি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ৯ হাজার ৪৬৩টি।

এদিকে, বন্যা পরিস্থিতির কারণে সিলেট অঞ্চলের চারটি জেলার পরীক্ষা ৮ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। এসব জেলায় আগামী ৯ জুলাই থেকে পূর্বঘোষিত সময়সূচি মেনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এক্ষেত্রে স্থগিত পরীক্ষাগুলোর সময়সূচি পরবর্তীতে করবে স্ব স্ব বোর্ডপ্রকাশ। একই সথে ৮ জুলাইয়ের পর আর কোনো পরীক্ষা স্থগিত করা হবে না বলেও জানিয়েছে সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড।

চলতি বছরও এইচএসসি পরীক্ষা পুনর্বিনাস করা পাঠ্যসূচি (সিলেবাস) অনুযায়ী সব বিষয়ে পূর্ণ নম্বর ও পূর্ণ সময়ে পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

বরাবরের মতো এবারো এইচএসসি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে কিছু নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষাবোর্ডগুলো। তা হলো-

১.পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে অবশ্যই পরীক্ষার কক্ষে প্রবেশ করতে হবে। কোনো কারণে কোনো পরীক্ষার্থীকে এর পরে প্রবেশ করতে দেয়া হলে তার নাম, রোল নম্বর, প্রবেশের সময়, এমনকি দেরি হওয়ার কারণ রেজিস্ট্রারে লিখে সংশ্লিষ্ট শিক্ষাবোর্ডে প্রতিবেদন দিতে হবে।

২. পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় শুধুমাত্র সাধারণ সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে। প্রোগ্রামিং কোনো ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে না।

৩. পরীক্ষাকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। কোনো পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন নিয়ে আসতে পারবে না।

৪. পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে সংশ্লিষ্টদের কাছে প্রশ্নপত্রের সেট কোড জানিয়ে দেয়া হবে। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কেউ মোবাইল ফোন নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। ছবি তোলা যায় না এমন মোবাইল শুধু ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ব্যবহার করতে পারবেন।

৫. পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ছাড়া অন্য কেউই কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না।

৬. বিশেষ সক্ষম (ডিফারেন্টলি অ্যাবল) পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ কিছু ব্যবস্থা করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরমধ্যে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রালপালসি জনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই, এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী স্ক্রাইব (শ্রুতি লেখক) সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। এ ধরনের পরীক্ষার্থীদের এবং শ্রবণ পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট বাড়ানো হয়েছে।

৭. প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় বাড়ানোসহ শিক্ষক, অভিভাবক বা সাহায্যকারীর বিশেষ সহযোগিতায় পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ রেখেছে সরকার।