https://bangla-times.com/
ঢাকামঙ্গলবার , ৭ মে ২০২৪
  • অন্যান্য

৮০০ টাকার জন্য কুকুরের সাথে বেঁধে রাখা হয় রিকশাচালকে

নিজস্ব প্রতিবেদক
মে ৭, ২০২৪ ৮:০৬ অপরাহ্ণ । ২৭ জন
Link Copied!

সাভারে মাত্র ৮০০ টাকার জন্য কুকুরের সাথে লোহার শিকল দিয়ে রবিউল (৪০) নামে এক রিকশাচালকে পায়ে বেঁধে রাখার ও মারধরের অভিযোগ ওঠেছে মামুন নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সাভার মডেল থানা পুলিশ ওই রিকশা চালককে শিকলবন্দি অবস্থা থেকে মুক্ত করে।

মঙ্গলবার (৭ মে) সকাল ৭ টা থেকে দুপুর ১ টা পযর্ন্ত সাভারের তেঁতুলঝড়া ইউনিয়নের ভরালি বারটেক্স পোশাক কারখানার সামনে গাছে বেঁধে রাখে।

ভুক্তভোগী রবিউল সাভারের তেঁতুলঝড়া ইউনিয়নের ঋষিপাড়া মহল্লা পরিবার নিয়ে ভাড়া বসবাস করে রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

অপরদিকে, অভিযুক্ত মামুন উপজেলার তেঁতুলঝড়া ইউনিয়নের বারটেক্স নামক একটি পোশাক কারখানার সামনে ভাড়া বাসায় বসবাস করে ভাঙারির ব্যবসা করেন।

ভুক্তভোগী রবিউল বলেন,আমি আগে ভাঙারির মালামাল মামুনের কাছে বিক্রি করতাম। সে সময় মামুন আমার কাছে ৮’শ টাকা পেতো। সেই টাকার জন্য আজ হেমায়েতপুরের কাঁঠাল তলা থেকে আমাকে ধরে নিয়ে আসে। পরে ওই টাকা ফেরত দিতে না পারায় সকালে একটি কুকুরের সাথে পায়ে শিকল পড়িয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখেছে বলে জানান তিনি। এসময় মামুন তাকে মারধর করেছে বলেও অভিযোগ জানায়।

সাভার মডেল থানার ট্যানারি ফ্যাড়ির ইনচার্জ রাসেল মোল্লা বলেন,খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ওই ব্যক্তিকে শিকলবন্দি অবস্থা থেকে মুক্ত করে। মূলত ধারের টাকার জন্যই তাকে বেঁধে রেখেছিলেন বলেও জানান তিনি।