https://bangla-times.com/
ঢাকাসোমবার , ২৯ এপ্রিল ২০২৪

হিট স্ট্রোকে মৃত্যু বাড়ছে, হাসপাতালেও রোগীর চাপ

চট্টগ্রাম ব্যুরো
এপ্রিল ২৯, ২০২৪ ৯:০৭ অপরাহ্ণ । ৩৭ জন
Link Copied!

গরমের দাপটের সাথে চট্টগ্রামের হাসপাতালগুলোতে বেড়েছে রোগীর চাপ। এর থেকে বাদ যাচ্ছে না শিশুরাও। হাসপাতালের শিশু বিভাগে ফাঁকা নেই বেড। অন্রদিকে, বাড়ছে হিট স্ট্রোকে মৃত্যুর সংখ্যাও।

সিভিল সার্জন ডা.মোহাম্মদ ইলিয়াস চৌধুরী বলেন, এখন যে তাপপ্রবাহ এই সময়ে ১ থেকে ৭ বছরের শিশুদের কোনোভাবেই ঘরের বাইরে বের হতে দেয়া ঠিক হবে না। সেই সাথে সব বয়সিদের দিনের বেলায় বাইরে বের হতে হলে শেড ব্যবহার করার পরামর্শ দেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, তীব্র তাপপ্রবাহের সময় দুপুর ১২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত ঘরের মধ্যে অবস্থান করতে পারলে ভালো। একই সঙ্গে প্রচুর পরিমাণে পানিসহ তরল খাবার খেতে হবে। শারীরিক কোনো সমস্যা দেখা দিলে চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে।

জানা গেছে, এ পর্যন্ত গরমে বিভিন্ন সময়ে ৮জন মারা গেছে। গত ১৯ এপ্রিল বোয়ালখালীতে ৬ মাসের এক কন্যা শিশুর মৃত্যু হয়। সে পশ্চিম শাকপুরা ২নম্বর ওয়ার্ড আনজিরমারটেক সৈয়দ আলমের নতুন বাড়ির মো. নিজাম উদ্দীনের মেয়ে। চিকিৎসকদের ধারণা তিনি হিটস্ট্রোকে মারা গেছেন। একই দিন হিটস্ট্রোকে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। ওই বৃদ্ধের নাম-শাহজাদা ছালেহ আহমদ শাহ (৭০)।

২২ এপ্রিল কর্নেলহাট শ্যামলী বাস কাউন্টারের সামনে হিটস্ট্রোকে শুকুর আলী নামের এক যুবক টেম্পোর মধ্যে মৃত্যু হয়। তিনি লক্ষ্মীপুর জেলার দালাল বাজারের হাজীবাড়ির মৃত মানিক মিস্ত্রির ছেলে।

২১ এপ্রিল পটিয়া উপজেলার ইব্রাহিম তালুকদারের বড় ছেলে জয়নুল আবেদীন দিদার (৫৮) হিটস্ট্রোকে মারা যান । একই এলাকার সামশুল আলম (৭০) হিট স্ট্রোকে মারা গেছেন। তিনি ওই ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা কমিটির সদস্য।

এছাড়া ২৫ এপ্রিল চট্টগ্রামের আনোয়ারায় এক স্কুলছাত্রীর হিট স্ট্রোকে মৃত্যু হয়েছে। তার নাম-রোশমিয়া জেবিন (১৬)।অতিরিক্ত গরমে অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়। হিট স্ট্রোকে ওই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে বলে পরিবারকে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

এরপর দিন ২৬ এপ্রিল পটিয়ায় হিট স্ট্রোকে একজনের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম- মোজাম্মেল হক (৭৫)। তিনি পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড মাঝের ঘাটার বাসিন্দা।

অন্যদিকে, ২৮ এপ্রিল সকালে মিরসরাইয়ে প্রচণ্ড গরমে মাথা ঘুরে পড়ে এক আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যু হয়। তিনি হলেন-জাহাঙ্গীর আলম (৫৩)। ধারণা করা হচ্ছে তিনি হিট স্ট্রোকে মারা গেছেন।

এছাড়া ২৮ এপ্রিল কালুরঘাট ফেরিতে মো. মোস্তাক আহমেদ কুতুবী আলকাদেরী নামে মাদ্রাসার এক শিক্ষকের মৃত্যু হয়। তিনি বোয়ালখালীর খিতাপচর আজিজিয়া মাবুদিয়া আলিম মাদ্রাসার শিক্ষক ছিলেন। চিকিৎসকদের ধারণা তিনি হিট স্ট্রোকে মারা গেছেন।