https://bangla-times.com/
ঢাকাসোমবার , ১ এপ্রিল ২০২৪

সিজারিয়ান অপারেশনে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ, প্রসূতির মৃত্যু

গাজীপুর প্রতিনিধি
এপ্রিল ১, ২০২৪ ২:২১ অপরাহ্ণ । ৭৩ জন
Link Copied!

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক না থাকায় নার্স দিয়েই করানো হয় সিজারিয়ান অপারেশন। এরপর অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।ঘটনাটি গাজীপুরের মাওনা চৌরাস্তা এলাকার লাইফ কেয়ার হাসপাতালের। রোববার (৩১ মার্চ) রাত সাড়ে ৯টায় এই ঘটনা ঘটে।

মৃত ওই নারীর নাম ইয়াসমিন আক্তার (৩০)। তিনি মাওনা উপজেলার ইন্দ্রপুর গ্রামের আসাদুল্লাহর স্ত্রী। এ ঘটনার পর হাসপাতালে ভাঙচুর করেন নিহত রোগীর স্বজনরা। এদিকে, প্রসূতির মৃত্যুর পর হাসপাতালের মালিকপক্ষ, কর্মকর্তা,কর্মচারী ও নার্স পালিয়ে যান।

নিহত প্রসূতির মা রাজিয়া আক্তার অভিযোগ করে জানান, রোববার (৩১ মার্চ) দুপুরে মেয়েকে হাসপাতালে ভর্তি করান। এ সময় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের জানায়, মাগরিবের নামাজের পর সিজার অপারেশন করা হবে।

তিনি জানান, রোববার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে জানানো হয় তার মেয়ের ছেলে হয়েছে।এ সশয় তিনি মেয়ের কাছে গিয়ে দেখেন প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে। এরপর রাত সাড়ে ৯টার দিকে মেয়ের অবস্থার অবনতি হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রেফার্ডের নাম করে অ্যাম্বুলেন্সে মরদেহ তুলে দিয়ে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে লাইফ কেয়ার হাসপাতালের ব্যবস্থাপক মো. পারভেজ হোসেনের ফোন নম্বরে কল দেয়া তা নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।

শ্রীপুরের ইউএনও শোভন রাংসা হাসপাতালে এসে বলেন, লাইফ কেয়ার হাসপাতালের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শ্রীপুরের উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা প্রণয় ভূষণ দাস বলেন, প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিবে।