https://bangla-times.com/
ঢাকাশুক্রবার , ১ মার্চ ২০২৪
  • অন্যান্য

লিটল ম্যাগাজিন মেলা ও পোস্টকার্ড স্বাক্ষর অভিযান

সমরেশ রায় ও শম্পা দাস, কলকাতা
মার্চ ১, ২০২৪ ১২:৪০ পূর্বাহ্ণ । ৫৪ জন
Link Copied!

মুচিবাজার সংলগ্ন শতাব্দী প্রাচীন উল্টোডাঙ্গা লাইব্রেরীর উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (২৯ শে ফেব্রুয়ারী) ঠিক বিকেল চারটায় লিটল ম্যাগাজিন মেলা সূচনা ও পোস্টকার্ড স্বাক্ষরতা অভিযান, এবং একটি বইয়ের মোরক উন্মোচন ও মেধাবৃত্তি প্রদান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, পবিত্র সরকার, তাপস মহারাজ, সব্যসাচী দেব, কমল দে শিকদার বাড়িত বরণ ঘোষ সহ ক্লাবের সদস্যরা।

একটি সুন্দর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই লিটল ম্যাগাজিন মেলার শুভ সূচনা করেন ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে।
এরপর সকল অতিথিদের উত্তরীয় পরিয়ে ,পুষ্পস্তবক ও স্মারক দিয়ে সম্মানিত করেন। তাহার সাথে সাথে ছাত্র-ছাত্রীদের মেধাবৃত্তি প্রদান করেন, উপস্থিত অতিথিদের হাত দিয়ে।

এই মেলা চলবে ২৯ শে ফেব্রুয়ারী থেকে ৩রা মার্চ পর্যন্ত, প্রায় ৪০টি স্টল রয়েছে, এবং বিভিন্ন প্রকাশনী লিটল ম্যাগাজিনে অংশগ্রহণ করেছেন। ও তাদের বইগুলি স্টলে সাজিয়েছেন।

এছাড়াও মেলায় থাকছে এই কয়েকদিনে, একক আবৃত্তি, সমবেত আবৃত্তি, সমবেত নৃত্য, দ্বৈত সংগীত ,বই প্রকাশ ,পুরস্কার বিতরণ, শ্রুতি নাটক ,আবোল তাবোল, আইনী আলোচনা, সেতার ও পাখরাজ ,লোকসংগীত, সাহিত্য বাসর প্রভৃতি।

সর্বশেষ সংক্ষিপ্ত বক্তৃতার মধ্য দিয়ে সকল অতিথি ও কবি ও সাহিত্যিকরা জানান, এই লাইব্রেরী বহু প্রাচীন প্রায় ১০০ বছরেরও বেশি এই লাইব্রেরীর জন্ম, এই খানে বহু লেখক কবি যুক্ত রয়েছেন, কিন্তু এই ধরনের লিটল ম্যাগাজিন মেলা কখনো হয়নি। আমাদের ভালো লাগলো এরকম একটা ঐতিহ্যপূর্ণ লাইব্রেরী উদ্যোগে লিটল ম্যাগাজিন মেলা শুরু হয়েছে, আগে কখনো লিটল ম্যাগাজিন নিয়ে কেউ ভাবতো না ,ইদানিং অনেকেই ভাবছে এবং লিটল ম্যাগাজিন মেলায় অনেক লেখা বেড়েছে ও বইয়ের সংখ্যাও বেড়েছে, লেখক লেখিকাও বেড়েছে।

আরো ভালো লাগলো এই লাইব্রেরী সকল ছাত্র-ছাত্রীদের মেধাবৃত্তি প্রদান করলেন। তাদের সামর্থ্য মতো,
সাথে সাথে তারা একটি নতুন পদক্ষেপ নিলেন , আস্তে আস্তে প্রায় বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া পোস্টকার্ড কে আবার বাঁচিয়ে রাখার জন্য ,তারা আজ স্বাক্ষর অভিযান শুরু করলেন, এই লিটন ম্যাগাজিন মেলা থেকে।।আমরা আনন্দিত ও কৃতজ্ঞ উল্টোডাঙ্গা লাইব্রেরীর কাছে, এই ধরনের একটি পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য, ক্লাবের ও লাইব্রেরীর সকল সদস্যদের আমরা ধন্যবাদ জানাই, এইভাবে এগিয়ে যাক এলাকার ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের মুখে হাসি ফোটানোর চেষ্টা করুক। আর আবার যেন পোস্ট কার্ড ফিরে আসে এই কামনা করি। সকল মানুষ আবার এই পোস্ট কার্ডের মাধ্যমে তাদের খবরা খবর আদান প্রদান করুক।‌ এর সাথে সাথে তারা একটি সুন্দর বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করলেন ,আজ সব রকম ভাবে উল্টোডাঙ্গা লাইব্রেরী এগিয়ে চলার পথ দেখালো সকলকে।