https://bangla-times.com/
ঢাকাসোমবার , ২৫ মার্চ ২০২৪

ভয়াল ২৫ মার্চ আজ, গণহত্যা দিবস

বিশেষ প্রতিবেদক
মার্চ ২৫, ২০২৪ ১২:২৯ পূর্বাহ্ণ । ১২৩ জন
Link Copied!

আজ ২৫ মার্চ । গণহত্যা দিবস । বাঙালি জাতির জীবনে ৭১ সালের এইদিন শেষে বিভীষিকাময় এক ভয়াল রাত নেমে এসেছিল । এদিন মাঝরাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী নীলনকশা অনুযায়ী বাঙালি জাতির কণ্ঠ চিরতরে স্তব্ধ করে দিতে ঢাকাসহ সারাদেশে নিরস্ত্র বাঙালীদের ওপর অত্যাধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে ।

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে গণহত্যা শুরু করেছিল পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী । এরপর নয় মাসের যুদ্ধের মধ্য দিয়ে আসে বাংলাদেশের স্বাধীনতা । ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে ব্যাপক গণহত্যা চালিয়ে বাঙালি জাতিকে নিশ্চিহ্ন করতে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী যে সশস্ত্র অভিযান পরিচালনা করে, এর নাম অপারেশন সার্চলাইট ।

অভিযানের নির্দেশনামা তৈরি করে পাকিস্তানের দুই সামরিক কর্মকর্তা মেজর জেনারেল খাদিম হোসেন রাজা ও মেজর জেনারেল রাও ফরমান আলী । নির্দেশনামার কোনো লিখিত নথি রাখা হয়নি ।

১৯৭০- এর সাধারণ নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে জয়লাভ করে আওয়ামী লীগ । এরপর পাকিস্তানি জান্তা ক্ষমতা হস্তান্তর না করায় সৃষ্ট রাজনৈতিক অচলাবস্থা নিরসনের প্রক্রিয়া চলাকালে পাকিস্তানি সেনারা কুখ্যাত ‘ অপারেশন সার্চ লাইট ’ নাম দিয়ে নিরীহ বাঙালি বেসামরিক লোকজনের ওপর গণহত্যা শুরু করে ।

পাকিস্তানিদের এই অভিযানের মূল লক্ষ্য ছিল আওয়ামী লীগসহ তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের প্রগতিশীল রাজনৈতিক নেতা- কর্মীসহ সকল সচেতন নাগরিককে হত্যা করা ।

বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে সাড়া দিয়ে বাঙালি পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে । দীর্ঘ ৯ মাস সশস্ত্র লড়াই শেষে একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর পূর্ণ বিজয় অর্জন করে । বিশ্বের মানচিত্রে অভ্যুদয় ঘটে নতুন রাষ্ট্র বাংলাদেশের ।

দিবসটি পালনের লক্ষ্যে আগামীকাল( সোমবার) রাত ১১ থেকে ১১টা ৩১ মিনিট পর্যন্ত সারাদেশে প্রতীকী ‘ ব্ল্যাক আউট ’ পালন করা হবে । এর আওতামঙক্ত থাকবে কেপিআই এবং জরুরি স্থাপনা ।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন । এদিন মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গণহত্যা দিবসের ওপর আলোচনাসভার আয়োজন করাহবে ।