https://bangla-times.com/
ঢাকাশনিবার , ৮ জুন ২০২৪
  • অন্যান্য

বেনজীরের সাভানা পার্ক জেলা প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি
জুন ৮, ২০২৪ ১১:১১ পূর্বাহ্ণ । ৩৮ জন
Link Copied!

অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে অভিযুক্ত সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে গোপালগঞ্জে করা সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্কে রিসিভার নিয়োগ করে নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে জেলা প্রশাসন।

শনিবার (৮ জুন) সকাল থেকে গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা অনুযায়ী পার্কের যাবতীয় কার্যক্রম চালু থাকবে।

এর আগে শুক্রবার (৭ জুন) সন্ধ্যায় গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসন এবং মাদারীপুর ও গোপালগঞ্জের দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দুটি দল পার্কে অবস্থান নেয়। পার্কের ভেতরে ঢুকে বেনজীর ও তার পরিবারের মালিকানাধীন সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্কের নিয়ন্ত্রণ বুঝে নেন তারা। এরপর রাত সাড়ে ১১টার দিকে পার্কের প্রধান গেটের পাশে মাইকিং করে নিয়ন্ত্রণ নেয়ার ঘোষণা দেন। এর ফলে শনিবার (৮ জুন) থেকে সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্ক জেলা প্রশাসনের নির্দেশনায় চলবে।

আরও পড়ুন : সাবেক আইজিপি বেনজীরের ৩ কালো হাত

গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসনের পক্ষে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিজ বাবলী এ বিষয়ে শবনম, দুদকের সহকারী পরিচালক সোহরাব হোসেন সোহেল, দুদক মাদারীপুরের সহকারী পরিচালক মো.সাইদুর রহমান ও গোপালগঞ্জ জ্যেষ্ঠ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সোহেল মো. জিল্লুর রহমান রিগানসহ জেলা প্রশাসন ও দুদক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন : বেনজীরের আলাদীনের চেরাগ দুদকে বন্দি

২০১৫ থেকে ২০২০ সালে র‌্যাবের মহাপরিচালক এবং ২০২০ সাল থেকে থেকে ২০২২ পর্যন্ত আইজিপি থাকাকালীন গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বৈরাগীটোল গ্রামে ৬২১ বিঘা জমির উপর গড়ে তোলেন সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্ক। এই পার্কে জমির প্রায় সবই হিন্দু সম্প্রদায়কে ভয় দেখিয়ে, জোর করে কেনা হলেও অনেক জমি দখল করা হয়েছে দখল করা হয়েছে।

এদিকে, সোমবার সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্ক বন্ধ ঘোষণা করা হয়। পার্কের গেটে নোটিশ দিয়ে বলা হয়, অনিবার্য কারণবশত সাভানা পার্ক বন্ধ থাকবে।

এরপর বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালত বেনজীর আহমেদের পরিবারের সদস্যদের নামে থাকা জব্দকৃত সম্পত্তিগুলোতে রিসিভার বা তত্ত্বাবধায়ক নিয়োগের নির্দেশ দেন আদালত।