https://bangla-times.com/
ঢাকাশুক্রবার , ৩ মে ২০২৪

প্রেমিকার ধর্ষণ মামলায় ফেঁসে গেলো প্রেমিক

সোহরাব হোসেন সৌরভ, রাজশাহী
মে ৩, ২০২৪ ৫:১০ অপরাহ্ণ । ২৪ জন
Link Copied!

প্রেমিকার প্রতারণার ফাঁদে ধর্ষণ মামলায় ফেঁসে গেলেন প্রেমিক। প্রেমিকের নাম শরিফ হোসেন। তার বাড়ি রাজশাহীর বাঘা উপজেলার মীরগঞ্জ মোড়ে। বৃহস্পতিবার (২ মে) থানায় অভিযোগ পেয়ে শুক্রবার পুলিশ তাকে আটক করে।

আটক শরিফ হোসেন বলেন, আমি আমার প্রেমিকার সাথে স্বেছায় মেলামেশা করেছি। তবে আমাকে ফাঁদে ফেলে সে যে, আরও কয়েকজন ছেলের সাথে ফেসবুক এবং ইমো চ্যাটিং এর মাধ্যমে অশ্লীল ছবি ধারণ করে সম্পর্ক রেখেছে তা আমার জানা ছিলো না। গত ৩০ এপ্রিল রাতে আমরা দু’জন স্বেছায় একসাথে রাত যাপন করা অবস্থায় তার মোবাইল আমার হাতে নিলে সব রহস্য বেরিয়ে আসে। পরদিন সকালে আমি তার মোবাইলটি আমার কাছে রেখে দিলে সে থানায় গিয়ে আমার নামে ধর্ষণ মামলা দায়ের করে।

অপরদিকে, ভুক্তভুগী নারী বলেন, আমি ফেসবুক-ইমোতে কয়জনের সাথে প্রেম করেছি, কিংবা কার সাথে আমার মোবাইলে ছবি তুলে রেখেছি সেটি আমার ব্যক্তিগত ব্যাপার। সে আমার ইচ্ছের বিরুদ্ধে আমাকে তার চাচার বাসায় রেখে ধর্ষণ করার পর আমার মোবাইল কেড়ে নেয়ায় আমি তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেছি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য তজলুল হক জানান, ধর্ষিত নারী স্বামী পরিত্যাক্তা এবং ধর্ষক তার ঘরে দু’জন স্ত্রী থাকার পরও সে ঐ নারীর সাথে প্রেমে লিপ্ত। যতটুকু বুঝেছি, ধর্ষক প্রেমিক তার প্রেমিকার মোবাইল কেড়ে না নিলে ঘটনা এতোদূর গড়াতো না, কিংবা থানায় মামলাও হতো না।

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুল ইসলাম এ বিষয়ে জানান, ৩০ এপ্রিল রাতে ধর্ষণের কথা উল্লেখ করে উপজেলার মীরগঞ্জ এলাকার এক নারী একই এলাকার শরিফ নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে ২ মে’ (বৃহস্পতিবার) সকালে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। এরপর শুক্রবার সকালে আসামীকে আটক করে। শনিবার (৪ মে) আসামীকে আদালতে প্রেরণ করা হবে।ধর্ষিতকে শুক্রবার বিকেলে রামেক হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিচ সেন্টার (ও.সি.সি) পাঠাবো হয়।