https://bangla-times.com/
ঢাকামঙ্গলবার , ৫ মার্চ ২০২৪
  • অন্যান্য

ট্রাম্পের প্রার্থিতা বাতিলে মামলা খারিজ। নিকি’র প্রথম জয়

শিতাংশু গুহ, নিউইয়র্ক থেকে
মার্চ ৫, ২০২৪ ১০:২৬ পূর্বাহ্ণ । ৮৩ জন
Link Copied!

এ সপ্তাহটি মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্যে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। সুপার-টুইসডে’র পর দুই দলের প্রার্থী মোটামুটিভাবে নিশ্চিত হয়ে যাবে। বৃহস্পতিবার ৭ই মার্চ প্রেসিডেন্ট বাইডেন কংগ্রেসের যৌথ সভায় ভাষণ দেবেন। এতে তিনি প্রমান করতে চাইবেন যে, বয়সের ভারে তিনি ন্যূজ নন। সব ঠিকঠাক থাকলে তিনিই ডেমোক্রেট প্রার্থী। অঘটন ঘটলে ডেমক্রেটরা বিকল্প প্রার্থী খুজবেন। ধারণা করা যায় মার্চ মাসের মধ্যে ট্রাম্প দলীয় মনোনয়ন করায়ত্ব করতে সক্ষম হবেন। নিকি হেলি প্রথম জয় পেয়েছেন ডিসি-তে। রিপাবলিকান কোন মহিলার কোন ষ্টেট বিজয় এই প্রথম।

ট্রাম্পের জন্যে সু-খবর যে, মার্কিন সুপ্রিমকোর্ট সর্বসম্মতভাবে কলোরাডো মামলা খারিজ করে দিয়েছেন। যদিও মামলাটি শুধুমাত্র কলোরাডোর, কিন্তু এ রায় মিনেসোটা, মেইন-সহ সকল টেস্টের জন্যে প্রযোজ্য। এরফলে প্রাইমারিতে কোন ষ্টেট ট্রাম্পের প্রার্থিতা বাতিল করতে পারবে না। এরআগে কলোরাডো আদালত ওই ষ্টেটে ট্রাম্পের প্রার্থিতা বাতিল করেছিলো। সুপ্রিমকোর্ট বলেছেন, সংবিধান কোন ষ্টেটকে এককভাবে কোন ফেডারেল প্রার্থীকে বাতিল করার ক্ষমতা দেয়নি; বিষয়টি কংগ্রেসের, ষ্টেটের নয়। খবর শুনে ট্রাম্প তার সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, ‘বিগ উইন ফর আমেরিকা’।

নিকি হেলি’র কপাল খুলেছে। ডি.সি. (ডিষ্ট্রিক্ট অফ কলম্বিয়া) রিপাবলিকান প্রাইমারিতে তিনি বিশাল জয় পেয়েছেন। নিকি ৬২.৮% ভোট পেয়ে সবগুলো (১৯টি) ডেলিগেট পেয়েছেন। ট্রাম্প ৩৩.৩% ভোট পেলেও কোন ডেলিগেট পাননি, কারণ ডেলিগেট পেতে হলে যেকোন প্রার্থীকে অন্তত: ৫০% ভোট পেতে হয়। ডিসি-তে ভোট শুরু হয় ১লা মার্চ, শেষ রোববার ৩রা মার্চ সন্ধ্যা ৭টা, এখানে শুধুমাত্র রেজিষ্টার্ড রিপাবলিকানরা সশরীরে ভোট দেয়ার অধিকারী ছিলেন। ট্রাম্পের প্রথম পরাজয়। ২০১৬-র রিপাবলিকান প্রাইমারিতে ডিসি-তে মার্কো-রুবিও জিতেছিলেন, ট্রাম্প হেরেছিলেন।

বাইডেনের জন্ম ২০শে নভেম্বর ১৯৪২ এবং ট্রাম্পের ১৪ই জুন ১৯৪৬। বাইডেন ৮১, নভেম্বরে হবেন ৮২, ডেমক্রেট দল ও ভোটাররা বিষয়টি নিয়ে চিন্তিত, তবে এখনো সবাই তাঁর পেছনেই আছেন। ৭টি ব্যাটেলগ্রাউন্ড ষ্টেট, আরিজোনা, জর্জিয়া, পেসিলভানিয়া, মিশিগান, নর্থ ক্যারোলিনা, নেভাদা ও উইস্কন্সিনে বাইডেন তাঁর প্রতিদ্ধন্ধী ডোনাল্ড ট্রাম্প থেকে পিছিয়ে আছেন (৪৮-৪৩%)। টাইম ম্যাগাজিনের মতে ১০জনের মধ্যে ৮জন মনে করেন বাইডেন অতি-বৃদ্ধ। আবার ১০জনের মধ্যে ৬জন মনে করেন ট্রাম্প ‘বিপদজনক’।