https://bangla-times.com/
ঢাকাশুক্রবার , ৩ মে ২০২৪
  • অন্যান্য

টাঙ্গাইলে এইচআইভি ও এইডস রোগের সচেতনতা সৃষ্টিতে কর্মশালা

মোঃ মশিউর রহমান,টাঙ্গাইল
মে ৩, ২০২৪ ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ । ৭৭ জন
Link Copied!

টাঙ্গাইলে এইচআইভি ও এইডস রোগ সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শহরের আকুর টাকুর পাড়া সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে বৃহস্পতিবার (২ মে) দুপুরে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন টাঙ্গাইলের সিনিয়র চিকিৎসক এবং জেলা বিএম এর সভাপতি ডাঃ ইবনে সাইদ। ভিডিও প্রদর্শনীর মাধ্যমে মূল বিষয়বস্তু উপস্থাপন করেন সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ মোঃ সাইদুর রহমান।

টাঙ্গাইলের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আজিজুল হক এর সভাপতিত্বে কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. খন্দকার সাদিকুর রহমান, এইচআইভি কাউন্সিলিং কোর্ডিনেটর ফৌজিয়া ইয়াসমিন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কর্মকর্তা ডাঃ রিফাত, মানবাধিকার সংস্থা – হিউম্যান রাইটস রিভিউ সোসাইটি টাঙ্গাইল জেলা শাখার সভাপতি সাংবাদিক মোঃ রাশেদ খান মেনন (রাসেল)’সহ প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ কারীগণ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন টাঙ্গাইল জেলা সিভিল সার্জন অফিসের সিনিয়র হেলথ এডুকেশন অফিসার মোঃ রব জেল হক।

প্রশিক্ষণে আয়োজকরা বলেন, প্রধানমন্ত্রী আন্তরিকভাবে চাচ্ছেন ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে এইচআইভি ও এইডস মুক্ত ঘোষণা করা হবে। এ লক্ষ্যে আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। এইচআইভি আক্রান্ত হলে চিকিৎসায় সুস্থ থাকা যায়। নির্ধারিত পদ্ধতিতে চিকিৎসা সেবা এবং ওষুধ গ্রহণে সম্পূর্ণ সুস্থ থেকে স্বাভাবিক জীবন যাপন করা যায়। কোনো রোগীর শরীরে রক্ত দেওয়ার প্রয়োজন হলে সেই রক্ত স্ক্রিনিং করে নিলে এইডস’সহ অনেক সংক্রামক ব্যাধি থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। বক্তারা ধর্মীয় অনুশাসন এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান। এ কর্মশালায় ধর্মীয় নেতা, শিক্ষক, স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের টেকনোলোজিস্ট, সরকারি হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্সগণ ও এনজিও কর্মী’সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।