https://bangla-times.com/
ঢাকাসোমবার , ৮ এপ্রিল ২০২৪

‘জাতির পিতার মতো শেখ হাসিনাও গরীবের দরদী’

নিজস্ব প্রতিবেদক,ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এপ্রিল ৮, ২০২৪ ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ । ৪৮ জন
Link Copied!

জাতির পিতার মতো শেখ হাসিনাও মানুষের দরদি বলে মন্তব্য করেছেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী।

রোববার (৭ এপ্রিল) ‘ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সমিতি, ঢাকা’র পক্ষ থেকে অসচ্ছল পরিবারের মাঝে ঈদসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এসব ঈদসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম শেখের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন, সহ-সভাপতি হাজি মো. হেলাল উদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু, উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট লোকমান হোসেন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, ইফতার পার্টি না করে এলাকার দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সাহায্য সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে জননেত্রী শেখ হাসিনা দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন। এজন্য আমরা ইফতার পার্টি না করে আপনাদের মাঝে ওই অর্থ দিয়ে ঈদসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছি। আমরা যারা বিত্তবান তারা ইফতার পার্টির নামে অনেক অপচয় করে থাকি। অথচ সমাজের গরিব মানুষেরা ভালোভাবে চলতে পারে না, তাদের কথা আমাদের ভাবনায় আনা উচিত। প্রধানমন্ত্রী এটি জানেন, কারণ তাঁর পিতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন গরিব মানুষের দরদি, শেখ হাসিনাও গরিব মানুষের দরদি। এজন্যই দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে তিনি আমাদের নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু জনকল্যাণমুখী এই নির্দেশনা বিএনপির নেতাকর্মীদের পছন্দ হচ্ছে না। এজন্য তারা আমাদের বিরুদ্ধে নানাভাবে মিথ্যা প্রোপাগান্ডা চালাচ্ছে। আপনারা এ বিষয়ে সতর্ক থাকবেন।বিএনপি নেতারা জনগণের কথা চিন্তা না করে পাঁচ তারকা হোটেলে বিদেশিদের নিয়ে ইফতার পার্টি করে বেড়াচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন মন্ত্রী। এসময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া প্রার্থনা করেন গণপূর্তমন্ত্রী মোকতাদির চৌধুরী।

এর আগে সকাল ১০টায় মন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কারাগারে বন্দিদের মাঝে শাড়ি, লুঙ্গি এবং শিশুদের জন্য ঈদের পোশাক বিতরণ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান, জেল সুপার মো. শহিদুল ইসলাম, জেল পরিদর্শক অ্যাডভোকেট সাইদুজ্জামান আরিফ প্রমুখ।

এরপর মন্ত্রী উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী ও প্রফেসর ফাহিমা খাতুনের ব্যক্তিগত উদ্যোগে জেলার শিশু নিবাসের শিশুদের মাঝে ঈদের পোশাক বিতরণ করা হয়।

বিকেল তিনটায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার আয়োজনে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নৈশপ্রহরী ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের মাঝে ঈদসামগ্রী বিতরণ করেন মন্ত্রী।