https://bangla-times.com/
ঢাকারবিবার , ৩ মার্চ ২০২৪

চোখের জলে নাভালনিকে বিদায়

বাংলা টাইমস্
মার্চ ৩, ২০২৪ ১২:১৮ পূর্বাহ্ণ । ১৩৬ জন
Link Copied!

রাশিয়ার বিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনিকে মস্কোতেই সমাধিস্ত করা হলো। তাকে শেষ বিদায় জানাতে এসেছিলেন হাজার হাজার মানুষ। রুশ প্রশানের চোখ রাঙানি উপেক্ষা করেই সবার গলায় শোনা যায় পুতিন-বিরোধী স্লোগান।

নাভালনির মরদেহ হাতে পেতে কার্যত যুদ্ধ করতে হয়েছিল তার পরিবারকে। দেহ কবর দেওয়া নিয়েও আরোপ করা হয়েছিল নানা বিধিনিষেধ। নিষেধাজ্ঞা ছিল স্মরণসভা নিয়েও। কিন্তু শুক্রবার কোনও কিছুই আটকাতে পারেনি সাধারণ মানুষকে।

এদিন মস্কোর মারইনোর চার্চ অফ দ্য আইকন অফ দ্য মাদার অফ গডে নাভালনির শেষকৃত্যের আয়োজন করা হয়। এক সময় এই শহরেই থাকতেন নাভালনি। এদিন প্রিয় নেতাকে বিদায় জানাতে আসেন বহু মানুষ। কিন্তু কাউকেই চার্চের ভিতরে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হয়নি। গেটের বাইরে থেকেই সকলে একবার নাভালনিকে শেষবার দেখার অনুরোধ জানান।

গত ১৬ ফেব্রুয়ারি রুশ জেল থেকে নাভালনির মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। এরপর থেকে সরগরম হয়ে ওঠে রাশিয়ার রাজনীতি। ‘পুতিন-বিরোধী’ নেতার মৃত্যুর কারণ নিয়ে একের পর এক চাঞ্চল্যকর দাবি করা হয়।

প্রায় ১ সপ্তাহ পর ছেলের দেহ দেখার অনুমতি পান নাভালনির মা। পুতিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন নাভালনির স্ত্রী ইউলিয়া। তিনি অভিযোগ করেন। “পুতিন এবং মস্কোর মেয়র সের্গেই সোবায়ানিন এর জন্য দায়ী। আমরা অ্যালেক্সেইর স্মরণসভা করার জন্য কোনও জায়গা পায়নি। ক্রেমলিনের লোকেরাই ওঁকে মেরেছে। তার পর তাঁর দেহ নিয়ে উপহাস করেছে। ওঁর মাকে নিয়ে উপহাস করেছে। এখন ওরা অ্যালেক্সেইর স্মৃতি নিয়েও উপহাস করবে।” জানা গিয়েছে, মস্কোর একাধিক চার্চ নাভালনির শেষকৃত্য করতে অস্বীকার করে।

শুক্রবার জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল রুশ প্রশাসন। কিন্তু সব নিষেধ উড়িয়ে রাশিয়ার একাধিক রাস্তায় ভিড় করে বহু মানুষ। এদিন গোটা রাশিয়া প্রায় ৬৭ জনকে আটক করা হয়।