https://bangla-times.com/
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৮ এপ্রিল ২০২৪

‘চিকিৎসকদের ফি নির্ধারণ করে দেয়া হবে’

কুমিল্লা প্রতিনিধি
এপ্রিল ১৮, ২০২৪ ৭:৫৩ অপরাহ্ণ । ৩৪ জন
Link Copied!

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন বলেছেন, প্রাইভেট প্র্যাকটিসে চিকিৎসকরা সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন কত টাকা পরামর্শ ফি নিতে পারবেন তা রোগীর স্বাস্থ্য সুরক্ষা আইনে নির্ধারণ করে দেয়া হবে। কর্মক্ষেত্রে চিকিৎসকদের সুরক্ষা অবশ্যই দেয়া হবে, পাশাপাশি রোগীদের স্বাস্থ্যের সুরক্ষাও দিতে হবে। কারণ আমি যেমন চিকিৎসকদের মন্ত্রী, তেমনি রোগীদেরও মন্ত্রী। নিবন্ধিত কোন চিকিৎসক অনিবন্ধিত হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা দিতে পারবেন না। জনগণের স্বাস্থ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলা যাবে না।

তিনি বলেন, কর্মক্ষেত্রে চিকিৎসক ও রোগীদের সুরক্ষা আইন মহান জাতীয় সংসদে পাসের জন্য আমার পক্ষ থেকে সব ব্যবস্থা নেয়া হবে। কুমিল্লায় একটি ক্যান্সার ও কার্ডিয়াক হাসপাতাল তৈরি করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ অডিটরিয়ামে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের আয়োজনে চাঁদপুর, নোয়াখালী ও কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের ছাত্র-শিক্ষক, চিকিৎসক ও জনপ্রতিনিধিদের সাথে এক মতবিনিময় সভা শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান, কুমিল্লা সিটি মেয়র ডা. তাহসিন বাহার সূচনা, স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. টিটো মিঞা।

এছাড়া সভায় বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক খন্দকার মু. মুশফিকুর রহমান, সিভিল সার্জন ডা. নাছিমা আক্তার, কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. মোহাম্মদ ইজাজুল হক প্রমুখ।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন প্রান্তিক অঞ্চলের স্বাস্থ্য প্রসঙ্গে বলেন, মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকে আমি সবসময় একটি কথায় বলে এসেছি, প্রান্তিক এলাকায় জরুরী স্বাস্থ্য সেবা বা অন্যান্য স্বাস্থ্য সেবা উন্নত হলে চিকিৎসা ব্যবস্থার আরও উন্নয়ন হবে। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হলে শহরের উপর অনেক কমে যাবে। প্রান্তিক এলাকায় জরুরী স্বাস্থ্য সেবা ও সব প্রকার স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা মন্ত্রী হিসেবে আমার দায়িত্ব।

সভায় উত্থাপিত বিভিন্ন দাবির প্রয়োজনীয়তা প্রসঙ্গে ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, আমাকে কিছু দাবির কথা বলা হয়েছে। একটা ক্যান্সার হাসপাতালের দরকার আমি বুঝি। আমি এটা নিয়ে কাজ করবো। অদূর ভবিষ্যতে আমি এখানে একটা ক্যান্সার হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করবো।