https://bangla-times.com/
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৮ এপ্রিল ২০২৪
  • অন্যান্য

গরমে রোগব্যাধিতে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা

চট্টগ্রাম ব্যুরো
এপ্রিল ১৮, ২০২৪ ১০:৩৭ অপরাহ্ণ । ২৮ জন
Link Copied!

চট্টগ্রামে তীব্র তাপপ্রবাহে নাভিশ্বাস তৈরি হয়েছে। অতিরিক্ত গরমে নানা রোগব্যাধিতে আক্রান্ত হচ্ছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের বিভিন্ন বয়সী মানুষ। অতিরিক্ত তাপপ্রবাহের কারণে শিশুদের শরীর থেকে প্রচুর ঘাম বের হয়ে পানিশূন্যতা তৈরি হচ্ছে।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর বেশিরভাগই ৪ থেকে ৫ বছর বা তারও কম এবং ৬০ বছরের বেশি বয়সি। তবে শিশুদের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বেশি। এর ফলে চট্টগ্রামের হাসপাতালগুলোতে বেড়েছে রোগীর চাপ। সর্দি, জ্বর-কাশি, শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়া, চর্মরোগ ও ডায়রিয়ার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে আসছে মানুষ। হাসপাতালের বহির্বিভাগেও রোগীর দীর্ঘসারি দেখা গেছে।

সরজেমিন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে দেখা যায়, হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ড রোগীতে ভড়া। স্থান সংকুলান না হওয়ায় মেঝেতেও বিছানা পেতে রাখা হয়েছে আক্রান্ত শিশুদের।

সাতকানিয়া উপজেলার চুনতি ইউনিয়ন থেকে ডায়রিয়া আক্রান্ত ৪ বছর বয়সী মেয়েকে নিয়ে গত ১৪ এপ্রিল চমেক হাসপাতালে এসেছিলেন জাহানারা বেগম। তিনদিন থেকে মেয়ে রোকসানাকে নিয়ে হাসপাতালে থাকলেও এখনো কোনো উন্নতি হয়নি। ডাক্তার আরও ৭ দিন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

জাহানারা বেগম বলেন, দুই মেয়ের মধ্যে রোকসানা ছোট। বড় মেয়ের বয়স ১২ বছর। তিনদিন ধরে মেয়েকে নিয়ে হাসপাতালে আছি। আমার শাশুড়িও আমার সঙ্গে আছেন। স্বামী চাকরি করায় আসতে পারেন না।

চমেক হাসপাতালের শিশু স্বাস্থ্য বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. এ কে এম রেজাউল করিম জানান, গরমের সময় শিশুরা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে। কারণ তাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম। কয়দিন থেকে রোগীর চাপ বেড়েছে। আমরাও সর্ব্বোচ্চটা দিয়ে সবাইকে সেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি।

চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার শামীম আহসান বলেন, গরমে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে বেশি ভর্তি হচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধ। শিশু ওয়ার্ডে স্বাভাবিক সময়েও চাপ থাকে। সবসময় সবাইকে সিট দেওয়া যায় না। এখন চাপ একটু বেশি।