https://bangla-times.com/
ঢাকারবিবার , ২৬ মে ২০২৪
  • অন্যান্য

কখন-কোথায় আঘাত হানবে ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’,

নিজস্ব প্রতিবেদক
মে ২৬, ২০২৪ ৫:২৭ অপরাহ্ণ । ৫৯ জন
Link Copied!

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ ধেয়ে আসছে বাংলাদেশের দিকে। ঘূর্ণিঝড়টির কেন্দ্র রোববার (২৬ মে) সন্ধ্যা ৬টার পর ৩-৪ ঘণ্টার মধ্যে খেপুপাড়া উপকূল অতিক্রম করার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উপকূলীয় কয়েকটি জেলায় ৮ থেকে ১২ ফুট অধিক জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে। এমনটাই জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

রোববার (২৬ মে) আবহাওয়ার ১২ নম্বর বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

আবহাওয়ার পূর্বাবাসে বলা হযেছে, প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি রোববার (২৬ ম) দুপুর ১২টায় কক্সবাজার সমুদ্র বন্দর থেকে ৩১৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ৩৩৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, মোংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ২২০ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ২০০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিলো। বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের অগ্রভাগের প্রভাবে ঝড়ো হাওয়া অব্যাহত রয়েছে।

কখন, কোথায় আঘাত হানবে: ঘূর্ণিঝড়টি আরও উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে রোববার (২৬ মে) সন্ধ্যা ৬টা থেকে ৩-৪ ঘণ্টার মধ্যে মোংলার কাছ দিয়ে সাগর আইল্যান্ড (পশ্চিমবঙ্গ) খেপুপাড়া উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৬৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার, যা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১২০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

পায়রা ও মোংলা সমুদ্রবন্দরকে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখানো হয়েছে। উপকূলীয় জেলা খুলনা,বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, পিরোজপুর, বরগুনা, ঝালকাঠি, বরিশাল,পটুয়াখালী, ভোলা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলো ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।

উপকূলীয় অঞ্চলে জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা: রোববার (২৬ মে) দুপুরে জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় কক্সবাজারের বেশ কিছু নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। কুতুবদিয়া পাড়া সমিতি পাড়াসহ জেলার ১০টি গ্রামে সাগরের জোয়ারের পানি ঢুকেছে। সন্ধ্যায় উপকূল এলাকায় ৫ থেকে ৬ ফুট পানি বৃদ্ধি পেতে পারে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে উপকূলীয় জেলা খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, পিরোজপুর, বরগুনা, বরিশাল, ঝালকাঠি, ভোলা, পটুয়াখালী, কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, কক্সবাজার, চট্টগ্রাম ও অদূরবর্তী দ্বীপ-চরের নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৮ থেকে ১২ ফুট অধিক জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে। আবহাওয়ার ১২ নম্বর বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা,বরিশাল, খুলনা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগে ঝড়ো হাওয়াসহ ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হতে পারে। ভারী বর্ষণের প্রভাবে কক্সবাজার, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও চট্টগ্রামের পাহাড়ী অঞ্চলের কোথাও ভূমিধ্বস হতে পারে।

চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ: ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও কক্সবাজার বিমানবন্দরে রোববার (২৫ মে) দুপুর ১২টা থেকে ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এর আগে কলকাতা ও কক্সবাজার বিমানবন্দরে ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে যে সিদ্ধান্ত: ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে দুর্যোগকালীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার বিষয়ে জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে। এত্যথ জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী।