https://bangla-times.com/
ঢাকারবিবার , ৩ ডিসেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য

স্বতন্ত্র প্রার্থী ফিরোজুর রহমানের মনোনয়ন বাতিল

নিজস্ব প্রতিবেদক,ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ডিসেম্বর ৩, ২০২৩ ১০:৩৪ অপরাহ্ণ । ১২২ জন
Link Copied!

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩-(সদর-বিজয়নগর) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল কারী, সদর উপজেলা পরিষদের সদ্য পদত্যাগ করা চেয়ারম্যান ফিরোজুর রহমান ওলিওর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

রোববার (৩ ডিসেম্বর)সকাল ১০টা থেকে বিকেল সোয়া ৩টা পর্যন্ত নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মোঃ শাহগীর আলমের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই চলে।

বাছাইয়ে শতকরা এক ভাগ ভোটারের তালিকা যাচাইয়ে সঠিক না পাওয়া (গড়মিল থাকায়) ফিরোজুর রহমান ওলিও’র মনোনয়নপত্রটি বাতিল করেন করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মনোনয়নপত্রের সাথে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফিরোজুর রহমান ওলিও শতকরা ১ ভাগ ভোটারের যে তালিকা জমা দেন সেই তালিকায় সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের মীর মোঃ বাবুল মিয়ার ছেলে মীর মোঃ বাইজিদ হোসাইনের ( জাতীয় পরিচয়পত্র নং-১৯৬০৪০৭৮৯৬) এর স্বাক্ষর ছিলো।বিষয়টি জানতে পেরে মীর বাইজিদ হোসাইন গত ১ ডিসেম্বর দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ২৪৫ ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩- এর সহকারি রিটার্নিং অফিসার বরাবর একটি লিখিত আবেদন করেন।

আবেদনে তিনি বলেন, আমি এই মর্মে হলফপূর্বক ঘোষনা করছি যে, স্বতন্ত্র প্রার্থী ফিরোজুর রহমানের দাখিলকৃত ভোটারের স্বাক্ষরপত্রে আমি কোন স্বাক্ষর প্রদান করি নাই। উক্ত প্রার্থী জাল জালিয়াতির আশ্রয়ে আমার নামীয় স্বাক্ষর প্রদান করে। উক্ত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের প্রার্থনা করছি।

এ ব্যাপারে নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মোঃ শাহগীর আলম বলেন, বাতিল হওয়া প্রার্থীরা রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তে সংক্ষুব্দ হলে ৫ থেকে ৯ ডিসেম্বরের মধ্যে আপিল করতে পারবেন।

অপরদিকে মনোনয়ন বাতিল হওয়ার পর ফিরোজুর রহমান ওলিও সাংবাদিকদের জানান, তার মনোনয়নপত্রটি উদ্দেশ্যমূলকভাবে বাতিল ঘোষনা করা হয়েছে। তিনি বাতিলের বিষয় নিয়ে নির্বাচন কমিশনের বরাবর আপিল করবেন।উল্লেখ্য ফিরোজুর রহমান ওলিও গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি আওয়ামীলীগের মনোনয়ন লাভের আশায় উপজেলা চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেন।