https://bangla-times.com/
ঢাকারবিবার , ২৬ নভেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য

রাজশাহী-১ আসনে টানা ৫ বার নৌকা পেলেন ফারুক চৌধুরী

ইমরান হোসাইন, তানোর (রাজশাহী)
নভেম্বর ২৬, ২০২৩ ১:৫৫ অপরাহ্ণ । ১৫৯ জন
Link Copied!

আবারও রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ী) আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হলেন বর্তমান সংসদ সদস্য ও সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রী ওমর ফারুক চৌধুরী। এনিয়ে তিনি টানা পঞ্চম বারের মত আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোনীত হয়ে নৌকা প্রতীক নিয়ে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করবেন। দলীয় পরিচয়ে ফারুক চৌধুরী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও জাতীয় ৪ নেতার অন্যতম শহীদ কামরুজ্জামান হেনা আপন ভাগ্নে।

এরআগে ২০০১ সালে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হলেও বিএনপির হেভি ওয়েট নেতা ও সাবেক মন্ত্রী প্রায়াত ব্যারিষ্টার আমিনুল হকের কাছে পরাজিত হন। এরপর ২০০৮ সালে প্রথম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন ফারুক চৌধুরী। ওই সময় ব্যারিষ্টার আমিনুল হক জঙ্গিমদদ দাতা ও বাংলাভায়ের উত্থানের অভিযোগে কারাদন্ড হয়ে বিদেশে পলাতক থাকায় সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করতে পারেননি। তার বড় ভাই বাংলাদেশ পুলিশের সাবেক আইজিপি ড. এনামুল হক বিএনপির টিকিট নিয়ে ধানের শীষ প্রতিকে নির্বাচন করেন। ওই নির্বাচনে ওমর ফারুক চৌধুরী বিপুল ভোটে ড. এনামুল হককে পরাজিত করে আবারও সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর ২০১৪ ও ২০১৮ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হয়ে টানা ৩ বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি।

২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদের মেয়াদ শেষের দিকে মন্ত্রী সভার রদবদল হলে তিনি শিল্প প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করে। ২০১৪ সালে বিনাপ্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হলেও মন্ত্রীত্ব না পেলেও তিনি শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থানীয় কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০০০ সালের দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতি শুরু করার পর তিনি প্রথমে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। এরপরে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিরও দায়িত্ব পালন করেন ফারুক চৌধুরী।

এদিকে, টানা পঞ্চম বারের মতো আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হওয়ায় তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছেন।