https://bangla-times.com/
ঢাকাশুক্রবার , ১ ডিসেম্বর ২০২৩

ঢাকা বিভাগে আসন ৫০, এমপি হতে চান ৪২১ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক
ডিসেম্বর ১, ২০২৩ ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ । ১৩৩ জন
Link Copied!

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া শেষ হয়েছে বৃহস্পতিবার। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয় শুরু হয়েছে শুক্রবার থেকে থেকে।যা চলবে ৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এবারের নির্বাচনে ২ হাজার ৭৪১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। যেখানে মোট ৩০টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের প্রার্থী রয়েছেন।

এরমধ্যে ঢাকা বিভাগের ৫০টি আসনে ৪২১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) বিভাগের ১০ জেলার রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে এসব মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া হয়।

মানিকগঞ্জ-১ (ঘিওর-দৌলতপুর-শিবালয়) আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী অ্যাড. আব্দুস সালাম, সালাউদ্দিন মাহমুদ জাহিদ (স্বতন্ত্র), হাসান সাঈদ (জাতীয় পার্টি), মোয়াজ্জেম হোসেন খান মজলিস (তৃণমূল বিএনপি), দীন মোহাম্মদ খান (জাকের পার্টি), মোনায়েম খান (বিএনএম), আবদুল আলী বেপারী (স্বতন্ত্র), আফজাল হোসেন খান জকি (জাসদ), আফজাল হোসেন খান (জাতীয় পার্টি, জেপি) ও জহিরুল আলম রুবেল (জাতীয় পার্টি) মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

মানিকগঞ্জ-২ (সিংগাইর-হরিরামপুর ও সদর উপজেলা তিনটি ইউনিয়ন) আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মমতাজ বেগম, ফেরদৌস আহম্মেদ আসিফ (বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন), আজিজুর রহমান (জাকের পার্টি), রফিকুল ইসলাম সিদ্দিকি (জাসদ), মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন (তৃণমূল বিএনপি), এ.কে.এম ইকবাল (বিএনএম), দেওয়ান জাহিদ আহম্মেদ টুলু (স্বতন্ত্র), এস এম আব্দুল মান্নান (জাতীয় পার্টি), দেওয়ান শফিউল আরেফিন টুটুল (স্বতন্ত্র), মুশফিকুর রহমান হান্নান (স্বতন্ত্র), এ.কে.এম নাহিদ (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি), তানভির হাসান (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), শাহবুদ্দিন আহম্মেদ চঞ্চল (স্বতন্ত্র), জাকির হোসেন (বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টি), মোহাম্মদ সারোয়ার আলম (স্বতন্ত্র) মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

মানিকগঞ্জ-৩ (সদর মানিকগঞ্জ-সাটুরিয়া) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, মফিজুল ইসলাম খান কামাল (গণফোরাম), মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম রুবেল (জাতীয় পার্টি), মোয়াজ্জেম হোসেন খান মজলিশ (তৃণমূল বিএনপি), দীন মোহাম্মদ খান (জাকের পার্টি), সৈয়দ সারোয়ার হোসেন চৌধুরী (জাসদ), এ খালেক দেওয়ান (বিএনএম), এম হাবিবুল্লা (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ) এবং বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী সাবিনা ইয়াসমিন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

গাজীপুর-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, কালিয়াকৈর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাসেলসহ আরও সাতজন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

গাজীপুর-২ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলিম উদ্দিন বুদ্দিন, মো. সাইফুল ইসলাম (স্বতন্ত্র) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

গাজীপুর-৩ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য রুমানা আলী টুসি, ইকবাল হোসেন সবুজ ছাড়াও এই আসনে স্বতন্ত্র ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মনোনীত আরও ছয়জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

গাজীপুর-৪ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমি ছাড়াও কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা আলম আহমেদ (স্বতন্ত্র) প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের জন্য তার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এ ছাড়া বিভিন্ন দলের সমর্থিত আরও ছয়জন প্রার্থী সংসদ সদস্য হওয়ার আশার মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন।

গাজীপুর-৫ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য মেহের আফরোজ চুমকি। এ স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন সাবেক এমপি ও আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা ডাকসুর সাবেক ভিপি-জিএস আখতারউজ্জামান। এ ছাড়া আরও সাতজন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন।

গোপালগঞ্জ-১ (মুকসুদপুর উপজেলা ও কাশিয়ানী উপজেলার আংশিক) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন মোট ৬ জন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) শেখ আবুল কালাম, জাকের পার্টির মাহাবুব মোল্লা, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির এম নিজাম উদ্দিন লস্কার, গণফ্রন্টের সৈয়দা লিমা হাসান, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. সহিদুল ইসলাম মিন্টু, জাতীয় পার্টির শিশির চৌধুরী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. কামাল হোসেন।

গোপালগঞ্জ-২ (গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা ও কাশিয়ানী উপজেলার আংশিক) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন মোট ৮ জন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী শেখ ফজলুল করিম সেলিম (এমপি), জাতীয় পার্টির কাজী শাহীন, তৃণমূল বিএনপির মো. জামাল উদ্দিন শেখ, জাকের পার্টির মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন মিয়া, জাসদের (ইনু) মো. ফুল মিয়া, জনতার জোট থেকে মামুনুর রশীদ, জাতীয় পার্টির (এম এ মতিন) ওমর খায়ৈম নয়ন ও স্বতন্ত্র মো. আমিনুল হাসান শাহীন।

গোপালগঞ্জ-৩ (টুঙ্গিপাড়া উপজেলা ও কোটালীপাড়া উপজেলা) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন মোট ৮ জন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোহাম্মদ ফারুক খান (এমপি), জাতীয় পার্টির (মঞ্জু) শহিদুল ইসলাম, জাকের পার্টির দেলোয়ার হোসেন, তৃণমূল বিএনপির জাহিদুল ইসলাম, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি থেকে মো. আব্দুল্লাহ ও স্বতন্ত্র থেকে মো. কাবির মিয়া।

মুন্সিগঞ্জ-১ আসনে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোহাম্মদ মহিউদ্দিন আহমেদ, গোলাম সারোয়ার কবির( স্বতন্ত্র), মাহি বদরুদ্দোজা চৌধুরী (বিকল্পধারা), অ্যাডভোকেট অন্তরা সেলিমা হুদা (তৃণমূল বিএনপি), অ্যাডভোকেট শেখ সিরাজুল ইসলাম (জাতীয় পার্টি), আতাউল্লাহ হাফেজ্জি (বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন পার্টি), লতিফ সরকার (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি), মোহাম্মদ ফরিদ হোসেন (বিএনএম) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

মুন্সিগঞ্জ-২ আসনে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, অ্যাডভোকেট সোহানা তাহমিনা (স্বতন্ত্র), মো. বাচ্চু শেখ (বিএনএম), নূরে আলম সিদ্দিক (মুক্তিজোট), মো. জালাল ঢালী (এনপিপি), মোহাম্মদ সহিদুল ইসলাম মল্লিক (ইসলামি ঐক্য জোট), কামাল খান, মো. জাকির হোসেন (জাকের পার্টি), সাবেক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ সাইরাজ খান, মো. জাহানূর রহমান (তৃণমূল বিএনপি)।

মুন্সিগঞ্জ ৩ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব, জাকের পার্টির সামিম হায়দার মোল্লা, বিএনএফের মমতাজ সুলতানা আহম্মেদ, মুক্তিজোটের মোহাম্মদ শাহীন হোসেন, বাংলাদেশ ইসলামিক ফ্রন্টের বাবুল মিয়া, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির মোহাম্মদ দুলাল হোসেন মন্ডল, বাংলাদেশ ইসলামিক ফ্রন্টের মোহাম্মদ ওমর ফারুক, জাতীয় পার্টির এএফএম রফিকুল্লাহ সেলিম, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ আজিম খান, স্বতন্ত্র প্রার্থী চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিন মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন।

টাঙ্গাইল-১ (মধুপুর-ধনবাড়ী) আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত বর্তমান সংসদ সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ আলী, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের ফারুক আহম্মেদ, জাকের পার্টির মো. রফিকুল ইসলাম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সাবেক সংসদ সদস্য খন্দকার আনোয়ারুল হক মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত বর্তমান সংসদ সদস্য তানভীর হাসান ছোট মনির, গোপালপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করে ইউনুছ ইসলাম তালুকদার ঠান্ডু, জাতীয় পার্টির মো. হুমায়ুন কবীর তালুকদার, জাকের পার্টির এনামুল হক মনজু, এনপিপির মো. সাইফুল ইসলাম, গণফ্রন্টের গোলাম সারোয়ার ও তৃণমূল বিএনপির মাহবুবুর রহমান খান মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ডা. মো. কামরুল হাসান খান, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী সাবেক সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানা, জাতীয় পার্টির মনোনীত ঘাটাইল উপজেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আব্দুল হালিম, বিএনএমের মো. জাকির হোসেন, বাংলাদেশ সাম্যবাদী দলের মো. সাখাওয়াত খান, জাকের পার্টির আব্দুল আব্দুল আজিজ খান, এনপিপির মো. হাসান আল মামুন সোহাগ, স্বতন্ত্র ফরিদা রহমান খান ও চৌধুরী হাবিবুর রহমান সিদ্দিকী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোজহারুল ইসলাম তালুকদার, জাতীয় পার্টির মনোনীত জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মো. লিয়াকত আলী, জাকের পার্টির মোন্তাজ আলী, তৃণমূল বিএনপির মো. শহিদুল ইসলাম, জাসদের এসএম আবু মোস্তফা, বিএসপির মো. শুকুর মামুদ, জাতীয় পার্টির (জেপি) সাদেক সিদ্দিকী, স্বতন্ত্র আবদুল লতিফ সিদ্দিকী, মুরাদ সিদ্দিকী ও সারওয়াত সিরাজ মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট মামুন অর রশিদ, বর্তমান সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক মেয়র জামিলুর রহমান মিরন ও বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মেহেনিগার হোসেন তন্ময়, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো. মোজাম্মেল হক, স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট খন্দকার আহসান হাবিব, জাকের পার্টির মো. দুলাল মিয়া, তৃণমূল বিএনপি মো. শরিফুজ্জামান খান, বিএনএমের মো. তৌহিদুর রহমান চাকলাদার, হাসরত খান ভাসানী, স্বতন্ত্র প্রার্থী মুরাদ সিদ্দিকী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

টাঙ্গাইল-৬ (নাগরপুর-দেলদুয়ার) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত বর্তমান সংসদ সদস্য আহসানুল ইসলাম টিটু, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তারেক শামস খান হিমু, নাগরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. জাকিরুল ইসলাম উইলিয়াম, জাতীয় পার্টির মনোনীত জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক সংসদ সদস্য মো. আবুল কাশেম, স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা বিএনপির সদস্য খন্দকার ওয়াহিদ মুরাদ, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন থেকে মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, বিএসপির আব্দুল করিম, স্বতন্ত্র প্রার্থী মুহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম, মো. তোফায়েল আহমেদ, মো. আব্দুল হাফেজ, রাকিব হোসেন ও মমতাজ খন্দকার, স্বতন্ত্র প্রার্থী এটিএম আনিসুর রহমান বুলবুল মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য খান আহমেদ শুভ, মির্জাপুর উপজেলা পরিষদ থেকে পদত্যাগ করে মীর এনায়েত হোসেন মন্টু স্বতন্ত্র প্রার্থী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রাফিউর রহমান ইউসুফজাই সানি ও ভাতগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. মোশারফ হোসেন, জাতীয় পার্টির মনোনীত জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জহিরুল ইসলাম জহির, বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির গোলাম নওজব চৌধুরী, বাংলাদেশ কংগ্রেসের রূপা রায় চৌধুরী, জাসদের মো. মঞ্জুর রহমান মজনু, জাকের পার্টির মো. মোক্তার হোসেন ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের মো. আরমান হোসেন তালুকদার মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখীপুর) আসনে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, আওয়ামী লীগের মনোনীত সখীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য অনুপম শাহজাহান জয়, জাতীয় পার্টির মনোনীত কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মো. রেজাউল করিম, তৃণমূল বিএনপির পারুল, জাকের পার্টির আব্দুল জলিল, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মোস্তফা কামাল ও বাংলাদেশ বিকল্পধারা মো. আবুল হাসেম মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

নরসিংদী-১ (সদর) আসনে মো ছবির হোসেন (তরিকত ফেডারেশন), অওলাদ হোসেন (জাকের পার্টি), মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ), মো. কামরুজ্জামান.(স্বতন্ত্র), মো. ওমর ফারুক মিঞা (জাতীয় পার্টি), শাহজাহান মিয়া (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি), ইকবাল হোসেন ভূঞা (বাংলাদেশ কংগ্রেস), আক্তারুজ্জামান (স্বতন্ত্র), মো. জাকারিয়া (স্বতন্ত্র) ও মো. জলিল সরকার (তৃণমূল বিএনপি)।

নরসিংদী-২ (পলাশ ও সদর উপজেলার ৩টি ইউনিয়ন) আসনে ডা. আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলীপ (আওয়ামী লীগ), জায়েদুল কবির (জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল), কামরুল আশরাফ খান পোটন (স্বতন্ত্র), মো. মাসুম বিল্লাহ (স্বতন্ত্র), এ এনএম রফিকুল ইসলাম সেলিম (জাতীয় পার্টি), আলতামাশ কবির (স্বতন্ত্র) , আফরোজা সুলতানা (স্বতন্ত্র) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।।

নরসিংদী-৩ (শিবপুর) আসনে ফজলে রাব্বি খান (আওয়ামী লীগ), স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সিরাজুল ইসলাম মোল্লা ও তার স্ত্রী উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফেরদৌসী ইসলাম, এ এস এম জাহাঙ্গীর পাঠান (জাতীয় পার্টি), মো. নূরুজ্জামান (ইসলামী ঐক্যফ্রন্টের), ডা. মো. আফতাব হোসেন (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি), সুশান্ত চন্দ্র বর্মণ (তৃণমূল বিএনপি) এবং মো মাসুম মৃধা (স্বতন্ত্র) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

নরসিংদী-৪ (মনোহরদী-বেলাব) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী অ্যাড. নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন সদ্য পদত্যাগকৃত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা কমিটির সদস্য সাইফুল ইসলাম খান বীরু, জাতীয় পার্টির অ্যাড. কামাল উদ্দিন, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের এমদাদুল হক ভূলন ও জাকের পার্টির মো. ফয়সাল মিয়া মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

নরসিংদী-৫ (রায়পুরা) আসনে রাজিউদ্দিন আহমেদ (আওয়ামী লীগ), মো. নাজমুল হক শিকদার (গণফ্রন্ট) মো. শহিদুল ইসলাম (জাতীয় পার্টি), আলহাজ মুফতি আব্দুল কাদের মোল্লা (ইসলামী ঐক্যজোট), বিল্লাল মিয়া (জাকের পার্টি), মিজানুর রহমান (স্বতন্ত্র), মমতাজ মহল (বাংলাদেশ কংগ্রেস), মো. সোলায়মান খন্দকার (স্বতন্ত্র), মো. মাহফুজুর রহমান(জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল) এবং মো. বিটু মিয়া (বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

মাদারীপুর-১ আসনে আওয়ামী লীগের নুর ই আলম চৌধুরী লিটন, তরিকত ফেডারেশনের তোফাজ্জেল হোসেন খান, জাকের পার্টির মো. মাসুদ শিকদার এবং জাতীয় পার্টির (জেপি) মোতাহার হোসেন সিদ্দিকী মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন।

মাদারীপুর-২ আসন আওয়ামী লীগের শাজাহান খান, জাকের পার্টির আসাদুজ্জামান আকন, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির ইউসুফ আলি সুমন, জাতীয় পার্টির একেএম নুরুজ্জামান এবং বাংলাদেশ কংগ্রেস থেকে সুবল চন্দ্র মজুমদার ।

মাদারীপুর-৩ আসনে আওয়ামী লীগের আব্দুস সোবাহান গোলাপ, জাকের পার্টি থেকে মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন, তৃণমূল বিএনপির প্রবীন হালদার, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির নিতাই চক্রবর্তী, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের নকুল কুমার বিশ্বাস, জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ খালেক, স্বতন্ত্র প্রার্থীর তাহমিনা বেগম এবং তৌফিকুজ্জামান মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।।

রাজবাড়ী-১ (সদর-গোয়ালন্দ) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী, তৃণমূল বিএনপি থেকে ডিএম মজিবুর রহমান, সুলতান মাহমুদ, জাতীয় পার্টির খন্দকার হাবিবুর রহমান বাচ্চু, জাকের পার্টির মো.আবু বক্কর সিদ্দিক, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মো.ইমদাদুল হক বিশ্বাস, স্বপন কুমার সরকার, মো. আ. মান্নান মুসল্লী ও আশিশ আকবর সুবির মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

রাজবাড়ী-২ (পাংশা-বালিয়াকান্দি-কালুখালী) আসনে আওয়ামী লীগের বর্তমান সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মো.জিল্লুল হাকিম, স্বতন্ত্র প্রার্থী নূরে আলম সিদ্দিকী হক, জাসদের মো.আব্দুল মতিন মিয়া, জাতীয় পার্টির মো.শফিউল আজম খান, জাকের পার্টির মোহাম্মদ আলী বিশ্বাস, মুক্তিজোটের মো.আব্দুল মালেক মন্ডল ও তৃণমূল বিএনপির এস এম ফজলুল হক মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

শরীয়তপুর-১ (পালং-জাজিরা) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইকবাল হোসেন অপু, জাতীয় পার্টির মাসুদুর রহমান, জাকের পার্টির দেলোয়ার হোসেন, তৃণমূল বিএনপির বাসার মাদবর, খেলাফত আন্দোলনের মো. আব্দুস সামাদ, স্বতন্ত্র থেকে মো. গোলাম মোস্তফা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত একেএম এনামুল হক শামীম, জাতীয় পার্টির ওহেদুর রহমান, জাকের পাটির বাদল কাজী, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের ফিরোজ মিয়া, গণফ্রন্টের কাজী জাকির হোসেন, বাংলাদেশ কংগ্রেসের সৌমিত্র দত্ত, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আবুল হাসান, বিকল্প ধারা বাংলাদেশের মো. আমিনুল ইসলাম, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মাহমুদুল হাসান, মুক্তিজোটের মো. মনির হোসেন ও স্বতন্ত্র থেকে ডা. খালেদ শওকত আলী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

শরীয়তপুর-৩ (ডামুড্যা-গোসাইরহাট-ভেদরগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের নাহিম রাজ্জাক, জাতীয় পার্টির মো. আব্দুল হান্নান, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের মো. সিরাজ চৌকিদার, জাকের পার্টির জিয়াউর রহমান, ইসলামী ঐক্যজোটের মাহদী হাসান মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

ফরিদপুরের চারটি আসনে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন মোট ২৬ জন। এরমধ্যে ফরিদপুর-১ আসনে ৭ জন, ফরিদপুর-২ আসনে ৪ জন, ফরিদপুর-৩ আসনে ৮ জন এবং ফরিদপুর-৪ আসনে ৭ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

কিশোরগঞ্জ-১ (কিশোরগঞ্জ সদর-হোসেনপুর) আসনে মনোয়নপত্র জমা দিয়েছেন ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি, সৈয়দ সাফায়েতুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), ডা. মো. মো. আব্দুল হাই (জাতীয় পার্টি), অ্যাডভোকেট ভূপেন্দ্র ভৌমিক দোলন (গণতন্ত্রী পার্টি), মো. আনোয়ারুল কিবরিয়া (এনপিপি), অ্যাডভোকেট সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু (স্বতন্ত্র), মো. আব্দুল আউয়াল (বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট), মো. আশরাফ উদ্দিন (ইসলামী ঐক্যজোট), মো. নাসির উদ্দিন (জাকের পার্টি), মোবারক হোসেন (বাংলাদেশ কংগ্রেস), শরীফ আহমদ সাদী (স্বতন্ত্র), মো. আবুল কাশেম (বাংলাদেশ কংগ্রেস)।

কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী-পাকুন্দিয়া) আসনে আব্দুল কাহার আকন্দ (আওয়ামী লীগ), মীর আবু তৈয়ব মো. রেজাউল করিম (গণফ্রন্ট), মো. আহসান উল্লাহ (তৃণমূল বিএনপি), অ্যাডভোকেট মো. সোহরাব উদ্দিন (স্বতন্ত্র), মো. আশরাফ আলী, আলেয়া (এনপিপি) ও মো. আখতারুজ্জামান (স্বতন্ত্র) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ-৩ (করিমগঞ্জ-তাড়াইল) আসনে দেলোয়ার হোসেন ভূইয়া (গণতন্ত্রী পার্টি), শামীম আহমদ (স্বতন্ত্র), মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম (এনপিপি), মোহাম্মদ মাহফুজুল হক (স্বতন্ত্র), মো. নাসিমুল হক (স্বতন্ত্র), মো. গোলাম কোভিদ ভূঁইয়া (স্বতন্ত্র), ওমর ফারুক (ইসলামী ঐক্যজোট), মো. মুজিবুল হক (জাতীয় পার্টি), নাসিরুল ইসলাম খান আওলাদ (আওয়ামী লীগ), মো. রুবেল মিয়া (স্বতন্ত্র) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন

কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামই-অষ্টগ্রাম) আসনে আ. মজিদ (বাংলাদেশ কংগ্রেস), রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক (আওয়ামী লীগ), মোহাম্মদ আবু ওয়াহাব (জাতীয় পার্টি), জয়নাল আবেদিন (এনপিপি), মো. শরীফুল আহসান (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), মাওলানা শেরজাহান মোমেন (ইসলামী ঐক্যজোট), মো. নসিম খান (বাংলাদেশ ইসলামিক ফ্রন্ট) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ-৫ (নিকলী-বাজিতপুর) আসনে মো. মাহবুবুল আলম (জাতীয় পার্টি), মো. সোহরাব হোসেন (তৃণমূল বিএনপি), সুব্রত পাল (স্বতন্ত্র), মো. সাজ্জাদ হোসেন (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), এ কে এম নাজমুল হক (জাকের পার্টি), মো. রবিন মিত্রা (বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক জোট), মো. ইমদাদুল হক (বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট), মো. আফজাল হোসেন (আওয়ামী লীগ) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) আসনে তারেক মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম (এনপিপি), নাজমুল হাসান পাপন (আওয়ামী লীগ), মো. রুবেল হোসেন (বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট), হেলাল উদ্দিন (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি), নূরুল কাদের সোহেল (জাতীয় পার্টি), মো. শাহাবুদ্দীন (স্বতন্ত্র), মোহাম্মদ আয়ুব হোসেন (বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট), আ. হাকিম (জাকের পার্টি), মোহাম্মদ আব্দুছ ছাত্তার (স্বতন্ত্র) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী, রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহজাহান ভূঁইয়া, তৃণমূল বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ও দলের মহাসচিব এড. তৈমুর আলম খন্দকার।

নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী আলমগীর সিকদার লোটন, তৃণমূল বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. আবু হানিফ হৃদয়, জাকের পার্টি মনোনীত প্রার্থী মো. শাহজাহান।

নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী, সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা, স্বতন্ত্র প্রার্থী ও আওয়ামী লীগ নেতা এরফান হোসেন দ্বীপ, স্বতন্ত্র প্রার্থী ও আওয়ামী লীগ নেতা মারুফ ইসলাম ঝলক মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা- সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী একেএম শামীম ওসমান, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী ছালাউদ্দিন খোকা, তৃণমূল বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. আলি হোসেন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী কাজী দেলোয়ার হোসেন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ-৫ (সদর-বন্দর) আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য একেএম সেলিম ওসমান, তৃণমূল বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. আব্দুল হামিদ ভাষানী, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ মনোনীত প্রার্থী এএসএম একরামুল হক, জাকের পার্টি মনোনীত প্রার্থী মোর্শেদ হাসান মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।